x

এইমাত্র

  •  দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও নয়জন, মৃত ২
  •  চট্টগ্রামে প্রথম করোনা শনাক্ত; ৩ চিকিৎসকসহ ১৮ জন কোয়ারেন্টিনে
  •  ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে পোশাক শ্রমিকদের ঢল
  •  রোববারের মধ্যে ১০ টাকা চালের বেনামি কার্ড জমা দেয়ার নির্দেশ
  •  করোনা মোকাবিলায় নৌযানে আইসোলেশন সেন্টার করা হবে

অঘোষিত ধর্মঘটে কার্যত অচল পুরো দেশ

প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:৩৯

সাহস ডেস্ক

সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ স্থগিত ও সংশোধনের দাবিসহ নয় দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘটে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে পুরো দেশ। ট্রাক শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে সড়কে চলছে হাতেগোনা কয়েকটি গণপরিবহন। এতে তীব্র ভোগান্তিতে পড়েছেন জনসাধারণ।

বুধবার (২০ নভেম্বর) সকাল থেকে বন্ধ রয়েছে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা-সিলেট, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের প্রায় সব যান চলাচল।

সরেজমিনে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড, সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল, কাঁচপুরসহ ঢাকা-সিলেট ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্নস্থানে পরিবহন শ্রমিকরা অবস্থান নিয়ে যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছেন। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড, সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল ও কাঁচপুরে শ্রমিকরা বিভিন্ন পরিবহনের বাস দিয়ে রাস্তা আটকে যান চলাচল বন্ধ করে রেখেছেন।

খুলনা: তৃতীয় দিনের মতো খুলনায় ধর্মঘট পালন করছে চালক ও শ্রমিকরা। আজও খুলনা থেকে কোনও দূরপাল্লার বাস ছেড়ে যায়নি। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। নতুন সড়ক আইন সংশোধন না করার প্রতিবাদে বাস চালকরা কর্মবিরতি পালন করছে। এ অবস্থার যাত্রীরা জরুরি প্রয়োজনে ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকে করে বাগেরহাট, কাটাখালী ও গোপালগঞ্জ যাচ্ছেন।

টাঙ্গাইল: ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক প‌রিবহন শূন্য হয়ে পড়েছে। টাঙ্গাইল হ‌তে জামালপুর-ময়মন‌সিংহসহ বি‌ভিন্ন রু‌টে যানবাহন চলাচল বন্ধ র‌য়ে‌ছে সকাল থে‌কে। এতে চরম ভোগা‌ন্তি‌তে প‌ড়ে‌ছেন যাত্রীরা।

কুড়িগ্রাম: সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে কুড়িগ্রাম থেকে সব রুটে বাস, মিনিবাস ও ট্রাক-ট্যাংকলরিসহ সব গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রেখেছে পরিবহন শ্রমিকরা। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা। বুধবার সকাল থেকে সব ধরনের গণপরিবহনের শ্রমিকরা অঘোষিত কর্মবিরতি শুরু করেছে

নারায়ণগঞ্জ: পরিবহন শ্রমিক আইন বাতিলের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড ও কাঁচপুর পয়েন্টে এবং নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় ধর্মঘটের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পরিবহন শ্রমিকরা। এ কারণে সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রামসহ আশপাশের সড়কের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সকাল থেকেই সাইনবোর্ড এলাকায় শ্রমিকরা সড়কে অবস্থান নেন। পরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড এলাকায় গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেন তারা।

চট্টগ্রাম: সড়ক পরিবহন আইন সংশোধনের দাবিতে ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের অংশ হিসেবে ট্রাক, কাভার্ডভ্যান চালাচ্ছে না চালক ও শ্রমিকরা। ধর্মঘটের কারণে মাদারবাড়ী, কদমতলী, নিমতলাসহ চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় টার্মিনালে অলস বসিয়ে রাখা হয়েছে পণ্যবাহী ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান। তবে বন্দর থেকে কনটেইনার পরিবহনে ব্যবহৃত প্রাইম মুভার বা ট্রেইলার চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

হিলি: দিনাজপুরের হিলি-বগুড়া পথে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন পরিবহন শ্রমিকরা। বন্ধ রয়েছে পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল। তবে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানিসহ বন্দরের কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে, চলছে লোড-আনলোড ও খালাস কার্যক্রম।

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধ: ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে এ রুটে চলাচলকারী শত শত যাত্রী দুর্ভোগে পড়েছেন। তবে ফেরি, লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কিন্তু ঘাটে যান না থাকায় ফেরিগুলোকে অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে। সকালের দিকে শিমুলিয়া ঘাট হতে বাস চলাচল শুরু হলেও, নয়টার পর শ্রমিকদের ধর্মঘটের কারণে তা আস্তে আস্তে বন্ধ হয়ে যায়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত