x

এইমাত্র

  •  আজ ১৭ই জুলাই প্রকাশিত হচ্ছে এইচ এস সি ফলাফল ২০১৯।

রণতরী ও বোমারু বিমান মোতায়েন একটি ‘মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ’: ইরান

প্রকাশ : ০৭ মে ২০১৯, ২১:৩২

সাহস ডেস্ক

ইরানকে হুশিয়ারি করতে মধ্যপ্রাচ্যে বিমানবাহী রণতরী ও বোমারু বিমান মোতায়েন একটি ‘মনস্তাত্ত্বিক যুদ্ধ’ জানিয়েছে ইরানের শীর্ষ নিরাপত্তা সংস্থা।

৭ মে (মঙ্গলবার) ইরানের আধা সরকারি তাসনিম সংবাদ সংস্থা এ খবর জানায়।

২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে যাওয়ার পর উভয় দেশের মধ্যে এ উত্তেজনা দেখা দেয়।

এদিকে তেহরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের চলমান পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়ায় ইরানের স্থায়ী পারমাণবিক কর্মসূচির অংশ আগামীকাল বুধবার পুনরুজ্জীবিত করার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে চুক্তিটি প্রত্যাহারের পরিকল্পনা নেই।

মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন গত রবিবার জানিয়েছেন, বাড়তে থাকা ইরানি বাহিনীর উসকানিমূলক ইঙ্গিত ও সতর্ক বার্তার প্রতিক্রিয়ায় তারা এসব পদক্ষেপ নিয়েছেন।

এদিকে ওয়াশিংটন ও তেহরানের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন, ইরানি ও তাদের ছায়া বাহিনীর সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতির প্রতিরোধক হিসেবে এই রণতরী ও বোমারু বিমান মোতায়েনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বোল্টন হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, এ ধরনের কোনো হামলা হলে কঠোর শক্তি প্রয়োগ করে জবাব দেয়া হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের কিংবা আমাদের মিত্রদের স্বার্থে কোনো আঘাত হানা হলে কঠোর শক্তি প্রয়োগ করে জবাব দেয়া হবে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, ইরানি সরকারকে পরিষ্কার ও দ্ব্যর্থহীন এ বার্তা দেয়ার উদ্দেশে সেন্ট্রাল কমান্ড অঞ্চলে ইউএসএস আব্রাহাম লিঙ্কন ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ ও একটি বোম্বার টাস্ক ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ চায় না। কিন্তু প্রতিনিধিদের মাধ্যমে, বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা ইরানের নিয়মিত বাহিনীর যে কোনো হামলার জবাব দেয়ার জন্য আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত।

সূত্র: রয়টার্স

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত