কাজী সালাউদ্দিন

“প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ‘গিফট’ পেয়ে খুশি হবেন সাবিনারা”

প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:২৬

সাহস ডেস্ক
বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

বাংলার বাঘিনীরা দিক্ষণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব্যের মুকুট জিতে জাতিকে করেছেন গর্বিত, ভাসিয়েছেন আনন্দে। সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের চ্যাম্পিয়ন হয়ে হিমালয়কন্যা খ্যাত দেশ নেপালে ইতিহাস গড়েছেন বাংলাদেশ নারীরা। দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরছেন বীর ফুটবলাররা। ইতিহাস গড়া জয়ে দক্ষিণ এশিয়ার সেরা হওয়া নারী ফুটবলারদের বরণ করে নেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। তবে চ্যাম্পিয়ন মেয়েদের জন্য এখনি পুরস্কারের অঙ্ক ঘোষণা করলেন না বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। তার প্রত্যাশা, প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ভালো ‘গিফট’ পেয়ে ভীষণ খুশি হবেন সাবিনা খাতুনরা। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বাফুফে ভবনে সংবাদ সম্মেলন ডেকে একথা জানান কাজী সালাউদ্দিন।

কাজী সালাউদ্দিন বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রীর কাছে চাইতেই হয় না। উনি নিজে অনুষ্ঠান করে আমাদেরকে দিয়ে দেন। উনি ইতোমধ্যে জানেন মেয়েরা কি করেছে। আমি আশা করছি ভালো রিসিপশন হবে, ভাল গিফট আসবে। একই সঙ্গে আরও কিছু কিছু জায়গায় স্পন্সরদের সঙ্গে একটু একটু করে আলাপ করছি। আমার মনে হয় আসার পর মেয়েরা খুব খুশি হবে। আলটিমেটলি যেটা হবে তারা খুশি হবে।’ মেয়েদের এই জয়কে বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা অর্জন হিসেবেও আখ্যা দিয়েছেন বাফুফে সভাপতি।

২০০৩ সালে সাফ পুরুষ চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এরপর ফুটবলে বলার মতো নেই কোন সাফল্য। তবে গত কয়েক বছরে নারী ফুটবলের উত্থান দেশের ফুটবলের দৃষ্টিভঙ্গিই বদলে দিয়েছে। যার ধারাবাহিকতা ধরে দেশের মেয়েরা জিতেছে দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) কাঠমান্ডুতে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ক্রীড়াঙ্গনের সাম্প্রতিক সময়ে সেরা সাফল্য এনে দিয়েছে সাবিনা খাতুনের দল। সাবিনা, কৃষ্ণাদের এই জয় দেশের মানুষের মধ্যেও তৈরি করেছে বিপুল উন্মাদনা। এবার সাফে পাঁচ ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে ২৩ গোল দেয় গোলাম রাব্বানি ছোটনের দল। হজম করে মাত্র এক গোল। হারায় ভারত, নেপালের মতো শক্ত প্রতিপক্ষকে। এতেই বোঝা যায় কতটা দাপুটে ফুটবল খেলেছেন সাবিনারা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?