সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ

সর্বোচ্চ গোলদাতা সাবিনাই সেরা খেলোয়াড়

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:০৪

সাহস ডেস্ক

১৫ হাজার দর্শকের সামনে কর্দমাক্ত মাঠে নেপালকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো দক্ষিণ এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ নারী দল। সাফের প্রথম এই জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। টুর্নামেন্টে ৮ গোল করে হয়েছেন সর্বোচ্চ গোলাদাতা। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) কাঠমুন্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে ২০২২ সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। জোড়া গোল করেছেন কৃষ্ণা নারী সরকার আর বাকি গোলটি করেছেন শামসুন নাহার জুনিয়র।

এবারের টুর্নামেন্টে দুটি হ্যাটট্রিকসহ মোট ৮ গোল করে সর্বোচ্চ গোলাদাতা হয়েছেন সাবিনা খাতুন। ফাইনালে গোল না পেলেও গোলের সহায়তা করেছেন এ দলনেতা। টুর্নামেন্টের প্রথম রাউন্ডে মালদ্বীপের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ে দুটি গোল করেন সাবিনা। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৬-০ গোলে জয়ে ৩ গোল এবং ভারতের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ে সাবিনা গোল না পেলেও সেমিফাইনালে ভুটানের বিপক্ষে ৮-০ গোলের জয়ে ৩ গোল করেন সাবিনা। তবে এর চেয়েও বড় স্বীকৃতিটা আদায় করে নিয়েছেন অধিনায়ক। হয়েছেন টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড়ও। টুর্নামেন্টে সেরা গোলকিপার বাংলাদেশের রুপনা চাকমা। ৫ ম্যাচে যার বিপক্ষে গোল হয়েছে মাত্র একটি।

দল হিসেবে এবার বাংলাদেশ দুর্দান্ত খেলেছে। তার মধ্যেই সাবিনা ছিলেন আলাদা। ঢাকা ছাড়ার আগে বলেছিলেন, শিরোপা নিয়ে ফিরতে পারলে নিজেকে সুখী ভাববেন। আজ সত্যিই নিজেকে সুখী ভাবার দিন সাবিনার। তার নেতৃত্বেই বাংলাদেশের মেয়েরা হিমালয় জয় করে ফিরছেন দেশে।

জয়ের পর শিরোপা হাতে অধিনায়ক সাবিনা খাতুন প্রকাশ করেছেন তীব্র উচ্ছ্বাস, ‘দীর্ঘ ১২-১৩ বছরের অপেক্ষা শেষ হয়েছে। এই ট্রফি সারা দেশের, সারা দেশের মানুষের। ভালো লাগছে যে ট্রফিটা নিয়ে যেতে পারছি।’ ব্যক্তিগত অর্জন নিয়ে ২৮ বছর বয়সী সাবিনা বলেন, ‘আমরা ফেয়ার প্লে ট্রফি জিতেছি। আমি সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার ও আসরের সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড়ের পুরস্কারও জিতেছি। শিরোপা জেতার পাশাপাশি এটা আমার জন্য অনেক বড় অর্জন। আমি মনে করি, এটা আমার জীবনের সেরা দিন।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?