লিটনের সেঞ্চুরি, রেকর্ডও আশরাফুলকে ছিটকে দিলেন

প্রকাশ : ২৩ মে ২০২২, ২১:৩২

সাহস ডেস্ক

টেস্টে সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ছন্দে আছেন লিটন দাস। চট্টগ্রামে গত টেস্টেও করেছিলেন ৮৮ রান। সেঞ্চুরির কাছে গিয়ে হাতছাড়া হলেও এবার আর কোন ভুল হলো না। মুশফিককে পেছনে ফেলে তুলে নিলেন টেস্টে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরি। ১৪৯তম বলে তিন অঙ্ক স্পর্শ করেন লিটন। একই সাথে একটি রেকর্ড থেকে আশরাফুলকে সরিয়ে নিজের নাম বসালেন লিটন। ২০০৭ সালে ৭৮ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে দলের হাল ধরেছিলেন তৎকালীন অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। অসাধারণ এক সেঞ্চুরিতে সেদিন বাংলাদেশকে লড়াইয়ে রেখেছিলেন তিনি। প্রায় ১৫ বছর ধরে টিকে ছিল সেই রেকর্ড। সোমবার সেই রেকর্ডটা মুশফিককে নিয়ে ভেঙে দিলেন লিটন কুমার দাস। তবে আশরাফুল-মুশফিকের সেই কীর্তির চেয়ে মুশফিক-লিটনের কীর্তি অনেক বড়। কারণ এদিন মাত্র ২৪ রানেই পাঁচ উইকেট হারিয়ে ফেলে টাইগাররা। বাংলাদেশ তখন শতরানের আগেই গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায়। সেখান থেকে দলকে টেনে তোলেন এ দুই উইকেটরক্ষক-ব্যাটার।

লিটনের সেঞ্চুরির সময় দলের রান ৫ উইকেটে ২০৮। ৬ষ্ঠ উইকেটে জুটিতে এসে গেছে ১৮৪ রান। সেঞ্চুরির পথে আছেন মুশফিকও। লিটনের পুরো ইনিংসে খুত কেবল একটাই। লাঞ্চের পর ৪৭ রানে পুল করতে গিয়ে ক্যাচ উঠিয়েছিলেন। জীবন পাওয়ার আগে ও পরে প্রতিপক্ষকে কোন সুযোগ দেননি তিনি। নিখুঁত ড্রাইভ, চাবুকের মতো পুল, কব্জির মোচড়ে ফ্লিক শটের বাহার ছিল তার ইনিংসে। লঙ্কান অধিনায়ক অন সাইডে আগ্রাসী ফিল্ডিং সাজালে লিটন রান বের করেছেন অন সাইডে। উলটো কিছু করেও লাভ হয়নি। ডানা মেলে ছুটতে থাকা বাংলাদেশের কিপার ব্যাটসম্যানকে আর থামানো যায়নি। অনেকটা অসহায় হয়ে যান শ্রীলঙ্কান বোলার-ফিল্ডাররা। তাদের পরিকল্পনাগুলো নসাৎ করে একের পর এক স্পেল হতাশায় পুড়াতে থাকেন লিটন।

এর আগে ম্যাচের আয়ু তখনো ৭ ওভারও হয়নি। ২৪ রানে ৫ উইকেট খুইয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে স্বাগতিকরা। দলের ভীষণ চাপে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে দারুণ এক জুটি গড়লেন লিটন। বরাবরের মতই নান্দনিক ব্যাটিংয়ে আলো কেড়ে নেন তিনি। চলতি বছর টেস্টে রান সংগ্রাহকের দৌড়ে অস্ট্রেলিয়ার উসমান খাওয়াজার পরেই আছেন লিটন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?