টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আইসিসির নতুন নিয়ম

প্রকাশ : ০৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:৩৫

সাহস ডেস্ক

নারী-পুরুষ উভয়ই আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নতুন নিয়ম চালু করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি। এখন থেকে স্লো ওভার রেটের কারণে ম্যাচ চলার সময়ই খেলোয়াড়কে শাস্তি পেতে হবে।

আজ শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানিয়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক এই সংস্থা। এ ছাড়া নতুন প্লেয়িং কন্ডিশনে বাড়তি একটি পানি পানের বিরতিও রাখা হয়েছে।

আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশনে ১৩.৮ ধারায় স্লো ওভার রেটে শাস্তির নতুন নিয়মটি চালু করা হয়েছে। বলা হয়েছে, নির্ধারিত কিংবা পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী ফিল্ডিং দল ইনিংসের শেষ ওভারের প্রথম বল করার মতো অবস্থানে থাকবে।

ফিল্ডিং দল যদি এ অবস্থায় না থাকে তাহলে মাঠের আম্পায়ারের হস্তক্ষেপে তৎক্ষণাৎ শাস্তি পেতে হবে—ইনিংসের বাকি সময়ে ফিল্ডিং দল ৩০ গজের বাইরে একজন ফিল্ডার কম নিয়ে ফিল্ডিং করবে। আইসিসি ক্রিকেট কমিটি সুপারিশের ভিত্তিতে নিয়মটি চালু করেছে। ইসিবি আয়োজিত ‘হানড্রেড’ টুর্নামেন্টে নিয়মটি চালু করে সফল হওয়ার পর এবার আইসিসিও তা লুফে নিল।

৩০ গজের বাইরে একজন ফিল্ডার কম থাকলে ব্যাটসম্যানদের যে সুবিধা হবে, তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। এদিকে ইনিংসে বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে ওভারের কোটা শেষ করার ক্ষেত্রে সাম্প্রতিক সময়ে স্লো ওভার রেটের নজির খুব কম নেই।

মাঝেমধ্যেই দলগুলো এ জন্য শাস্তি পাচ্ছে। ১৬ জানুয়ারি শুরু হতে যাওয়া ছেলেদের ওয়েস্ট ইন্ডিজ-আয়ারল্যান্ড সিরিজ থেকে এ নিয়ম চালু হবে। ১৮ জানুয়ারি দক্ষিণ আফ্রিকা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ দিয়ে মেয়েদের ক্রিকেটে নিয়মটি চালু হবে।

এছাড়া বাড়তি পানি পানের বিরতি প্রসঙ্গে বলা হয়, প্রতি ইনিংসের মাঝপথে রাখা হতে পারে এই বিরতি। তবে সিরিজ শুরুর আগে দুই দলকে এ ব্যাপারে সম্মতি দিতে হবে। আড়াই মিনিট করে এই বিরতি চলবে।

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এ নিয়ম চালু করলেও এখন থেকে প্রতিটি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সিরিজেই তা ব্যবহার করতে চায় আইসিসি।

এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচে স্লো ওভার রেটের কারণে ম্যাচের পর জরিমানা ও নিষেধাজ্ঞার মতো শাস্তি দিয়েছে আইসিসি। নিয়মটি পরিবর্তন করে টি-টোয়েন্টিতেই নতুন নিয়ম চালু করা হলো।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?