দ্বিতীয় টেস্টে ২০৯ রানে হেরেছে বাংলাদেশ

প্রকাশ : ০৩ মে ২০২১, ১২:৩৭

সাহস ডেস্ক

প্রথম টেস্টে ড্র’র পর দ্বিতীয় টেস্টে হেরেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের আজ পঞ্চম দিনে সব উইকেট হারিয়েছে মুমিনুল হকের দল। সোমবার (৩ এপ্রিল) পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় টেস্টে ২০৯ রানে হেরেছে বাংলাদেশ।

হারটা প্রায় নিশ্চিতই ছিল। পাল্লেকেলে টেস্টর পঞ্চম দিনটা একদিক দিয়ে ছিল আনুষ্ঠানিকতারই। লিটন দাস আর মেহেদী হাসান মিরাজই ছিলেন শেষ স্বীকৃত জুটি। কিন্তু এ জুটি কিছুটা লড়াই করবে। প্রতিরোধ গড়ে তুলবে, এমন প্রত্যাশা তো ক্রিকেটপ্রেমীদের ছিলই। কিন্তু সেটি হয়নি। চতুর্থ দিন ৫ উইকেটে করা ১৭৭ রানের সংগ্রহের সঙ্গে আর মাত্র ৫০ রানই যোগ করতে পেরেছে বাংলাদেশ। বাকি ৫ উইকেট নিতে শ্রীলঙ্কাকে করতে হয়েছে মাত্র ২৩ ওভার। বাংলাদেশের শেষ ৩ উইকেট পড়েছে মাত্র ৯ বলের ব্যবধানে।

শ্রীলঙ্কার অভিষিক্ত বাঁ হাতি স্পিনার প্রাভিন জয়াবিক্রমা পাল্লেকেলেতে দুই ইনিংস মিলিয়ে নিয়েছেন ১১ উইকেট। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের স্বপ্ন শেষ করে দেওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে তিনিই করুন সমাপ্তিটা টেনেছেন ৫ উইকেট নিয়ে। টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেকে কমপক্ষে ১০ উইকেট পাওয়া ১৬তম ক্রিকেটার তিনি। এখানেই শেষ নয়। ১৯৮০ সালের পর জয়াবিক্রমা টেস্ট অভিষেকে কমপক্ষে ১০ উইকেট পাওয়া চতুর্থ বোলার।

ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হকের মতে পাল্লেকেলে টেস্টের ভাগ্য গড়ে দিয়েছে টসই। এটা জিততে না পারাই তার ভাষায় ‘কাল’ বাংলাদেশ দলের, আমি মনে করি টেস্ট ক্রিকেটে টস হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। এই টেস্টের প্রথম দুই দিন বোলারদের জন্য তেমন কিছু ছিল না। পঞ্চাশ শতাংশ টেস্ট ম্যাচেরই ভাগ্য নির্ধারণ করে দেয় টস।

তবে মুমিনুলের কণ্ঠে কিছুটা আত্মসমালোচনাও ছিল, শ্রীলঙ্কার কন্ডিশন বাংলাদেশের মতোই। তবে আর্দ্রতাটা একটু বেশি। এটাই আমাদের কিছুটা ভুগিয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে চাপ থাকবে, প্রতিকূলতা থাকবে, আপনাকে এটা মেনে নিয়েই পারফরম করতে হবে। আমরা প্রথম ইনিংসেই টেস্টটা হেরে গেছি। প্রথম ইনিংসে আমাদের আরও ভালো ব্যাটিং করা উচিত ছিল

সূত্র: প্রথম আলো

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?