স্প্যানিশ লা লিগা

বার্সেলোনার শিরোপার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলেন দেম্বেলে

প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪১

শিরোপা জয়ের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে হলে ভায়োদলিদের বিপক্ষে জিততেই হবে, এমন সমীকরণ নিয়েই মাঠে নেমেছিল মেসি-দেম্বেলেরা। অনেক নাটকীয়তার পর সেই সমীকরণ পূরণ করেছে তারা। নিজেদের মাঠে ম্যাচের একদম শেষ মুহুর্তে ফরাসি ফরোয়ার্ড ওসমান দেম্বেলের একমাত্র গোলে রিয়াল ভায়োদলিদকে হারিয়ে নাটকীয় জয় তুলে নিয়েছে কাতালান ক্লাব বার্সেলোনা। আর এতেই শিরোপা জয়ের স্বপ্ন বেঁচে থাকল কাতালানদের।

সোমবার (৫ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ক্যাম্প নু’য়ে রিয়াল ভায়োদলিদকে ১-০ গোলে হারিয়েছে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। এই জয়ে আবারো চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে টপকে শীর্ষে থাকা অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের থেকে এক পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে কাতালানরা।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই চলছিল নাটকীয়তা। শুরু থেকে ভায়োদলিকে চেপে ধরে বার্সাবাহিনী। কিন্তু হঠাৎ গোল খেয়ে বসেছিল বার্সা। ম্যাচের আট মিনিটের সময় রাইটসাইট থেকে ভায়োদলিদের এক মিডফিল্ডারের ক্রস থেকে হেড দেন দলটির ফরোয়ার্ড কুরো। কিন্তু বলটি গোল বারে লেগে এ যাত্রা বেঁচে যায় বার্সেলোনা।

এরপর বিরতিতে যাওয়ার আগেই এগিয়ে যেতে পারত বার্সা। ম্যাচের ৪৫ মিনিটে ডি-বক্সের সামনে থেকে জালে শট নেন পেদ্রি। ঝাঁপ দিয়ে বলটি ধরতে গিয়ে গোলরক্ষকের হাত থেকে ছুটে গোলবারে লেগে আবারো ফিরে আসে। তাৎক্ষণিক বলটি ধরে ফেলেন ভায়োদলিদের গোলরক্ষ জর্দি মাসিপ। পুরো ম্যাচেই তিনি ভালো খেলেছেন। পরে গোলশূন্য নিয়ে বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতি থেকে ফিরে এসেও বল নিজেদের দখলে রাখার চেষ্টা করে মেসি-দেম্বেলেরা। আর এতেই এগিয়ে যেতে পারত বার্সা। ম্যাচের ৫৮ মিনিটে কিছুটা একক প্রচেষ্টায় বল নিয়ে ভায়োদলিদের ডি-বক্সের ভিতর ঢুকে জলে শট নেন দেম্বেলে, বলটি ঠেকিয়ে দিলেও নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি গোলরক্ষক, শূন্যে ভাসতে থাকা বলটিতে দৌড়ে আসা গ্রিজম্যান হেড দেন, কিন্তু জালের বাইরে থেকে চলে যায়।

এরপর ১০ জনের দলে পরিণত হয় রিয়াল ভায়োদলিদ। ম্যাচের ৭৯ মিনিটে ওসমান দেম্বেলেকে মারাত্মকভাবে ফাউল করে বসেন ভায়োদলিদের স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড অস্কার প্লানো। সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি। এতে ১০ জনে পরিণত হয় সফরকারীরা।

এই ১০ জনে পরিণত হওয়া ভায়োদলিদের বিপক্ষে সুযোগটি কাজে লাগায় বার্সা। ম্যাচের একদম শেষ মুহুর্তে ওসমান দেম্বেলের পায়ে গোলের দেখা পায় কাতালানরা। ম্যাচের ৮৯ মিনিটে রাইটসাইডে থাকা ডি ইয়ংয়ের কাছে বল দেন রিকি পুচ। সেখান থেকে ক্রস করেন ইয়ং। সেই ক্রসে সফরকারীদের ডিফেন্ডার হেড দিয়ে ঠেকাতে গেলে বল চলে যায় লেফসাইডে থাকা দেম্বেলের কাছে। সেখান থেকে কোনাকুনি শটে জালে বল জড়ান এই ফরাসি ফরোয়ার্ড। এ নিয়ে লিগে দেম্বেলে ৫টি গোল করলেন। পরে বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে এই ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা।

এই জয়ে ২৯ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে উঠে এসেছে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচ খেলে বার্সার থেকে এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ, তাদের পয়েন্ট ৬৬। সমান ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয়তে নেমে গেছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থস্থানে আছে সেভিয়া।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?