অ্যাথলেটিকোকে হারিয়ে মেসিদের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখলেন আর্জেন্টাইন সতীর্থ

প্রকাশ : ০৫ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৪১

চলতি মৌসুমে বার্সেলোনা থেকে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদে যোগ দিয়েছেন উরুগুইয়ান ফরোয়ার্ড লুইস সুয়ারেজ। এরপর থেকেই উড়তে থাকে ক্লাবটি। স্প্যানিশ লা লিগায়তো শুরু থেকেই দাপটের সহিত জিতে এসেছে। এমনকি পয়েন্ট ব্যবধানেও ছিল ধরাছোঁয়ার বাইরে। শিরেপার কাছাকাছিও চলে এসেছিল দলটি। কিন্তু ধিরে ধিরে অ্যাথলেটিকো পাসে এসে বসেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। বিশেষ করে বার্সেলোনার জন্য আরো সহজ করে দিলেন মেসির জাতীয় দলের সতীর্থ মার্কাস আকুনিয়া। গত রাতে এই আর্জেন্টাইনের গোলেই থমকে গেল অ্যাথলেটিকো। আর এতেই বার্সেলোনার জন্য শিরোপা জয় অনেকটা সহজ হয়ে গেল।

রবিবার (৪ এপ্রিল) দিবাগত রাতে র‌্যামন সানচেজ পিজুয়ান স্টেডিয়ামে লা লিগার ম্যাচে সেভিয়ার মাঠে তাদেরই বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে গেছে দিয়েগো সিমিওনের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। আর তাতেই নিশ্চিত হয়েছে, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে অ্যাথলেটিকোর ব্যবধান কমে আসা।

আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ক্যাম্প নুয়ে রিয়াল ভায়াদোলিদের বিপক্ষে মাঠে নামবে বার্সেলোনা। হাতে থাকা এই ম্যাচটা জিতলেই অ্যাথলেটিকোর থেকে মাত্র এক পয়েন্ট পিছে থাকবে কাতালানরা। এদিকে নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাথলেটিকোর চেয়ে মাত্র তিন পয়েন্ট পিছিয়ে আছে রিয়াল। মৌসুমের শুরুটা বাজে হওয়ার পর শিরোপার সুবাসটা এবার বেশ ভালোভাবেই পাওয়া শুরু করেছেন মেসিরা।

এদিন ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারত সেভিয়া। কিন্তু মেসির আর্জেন্টাইন আরেক সতীর্থ সেই আশা মাটি করে দিয়েছে। ম্যাচের সাত মিনিটের মাথায় অ্যাথলেটিকোর স্প্যানিশ মিডফিল্ডার সল নিগেজ পেনাল্টি বক্সের মধ্যে ফেলে দিয়েছিলেন সেভিয়ার সাবেক বার্সা মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচকে। সাথে সাথে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু সেটি কাজে লাগাতে পারেননি সেভিয়ার আর্জেন্টাইন উইঙ্গার লুকাস ওকাম্পোস। ম্যাচের আট মিনিটে তার স্পট কিক আটকে দিয়েছিলেন অ্যাথলেটিকোর স্লোভেনিয়ান গোলকিপার ইয়ান ওবলাক। এই নিয়ে মৌসুমে দুটি পেনাল্টি আটকালেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই গোলকিপার। পরে প্রথমার্ধের বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে গোলশূন্যতে বিরতিতে যায় দুদল।

বিরতি থেকে ফিরে এসে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে দুদলই। তবে গোলের দেখা পায় ম্যাচের ৭০ মিনিটের মাথায়। ম্যানচেস্টার সিটির সাবেক স্প্যানিশ উইঙ্গার হেসুস নাভাসের কাছ থেকে বল পেয়ে হেডে গোল করেন আর্জেন্টাইন লেফট মিডফিল্ডার মার্কাস আকুনিয়া।

পরে ম্যাচের বাকি সময়ে এই গোলটি শোধ করতে পারেননি সুয়ারেজরা। অবশেষে এই ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সেভি। আর পরাজয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলে আটকে গেল দিয়েগো সিমিওনের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ।

এই জয়ে ২৯ ম্যাচে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থস্থানে আছে সেভিয়া। সমান ম্যাচে ৬৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর এক ম্যাচ কম খেলা বার্সেলোনা ৬২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে আছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?