প্রত্যাবর্তন ম্যাচে ‘দ্য কিং সাকিব’

প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৫৮

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এক বছরেরও বেশি দিন পর আন্তর্জাতিক ম্যাচে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। শুধু তাই নয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচটিই হচ্ছে সাকিবের দেশের মাটিতে ১০০তম ম্যাচ। আর ম্যাচেই ফিরলেন রাজার মতো, নিলেন ৪ উইকেট। হয়ে গেলো দেশের মাটিতে ১৫০ উইকেট।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) মিরপুর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ক্যারিবীয়দের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ।

এদিন টসে জিতে আগে ফিল্ডিংয়ে সিদ্ধান্ত নেন জাতীয় দলের নতুন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ৩২.২ সব উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২২ রান সংগ্রহ করে সফরকারিরা। এই ম্যাচেই ৪টি উইকেট নেন সাকিব।

ব্যাটিং পাওয়ার প্লের পর যখন বোলিংয়ে এলেন, তখন ক্রিজে অ্যান্ড্রু ম্যাকার্থি ও অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ। দুজনই ডানহাতি। উইকেট দিয়ে নতুন শুরুটা রাঙানোর এমন সুযোগ হাতছাড়া করলেন না সাকিব। প্রথম ওভারেই সাইড স্পিন মেশানো একটি বল জেসন মোহাম্মদের ব্যাটের পাশ ঘেঁষে চলে যায় উইকেটকিপার মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসে। মোস্তাফিজের তৈরি করা উইকেটের ক্ষতের সাহায্য ছিল অবশ্য। তবে ডানহাতি ব্যাটসম্যানের মনে ভয় ঢোকানোর জন্য সেটিই ছিল যথেষ্ট।

তবে জাতীয় দলের জার্সিতে ফিরেই উইকেট পেতে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি সাকিবকে। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই আর্ম বলে বোল্ড করেন ম্যাকার্থিকে। বাঁহাতি স্পিনারের অফ স্টাম্পের বাইরের বল সুইপ করতে চেয়েছিলেন ম্যাককার্থি। লাইনে যেতে পারেননি, স্টাম্পে আঘাত হানে বল। ৩৪ বলে ১ চারে ১২ রান করেন ম্যাককার্থি।

এরপর ক্রিজে অধিনায়ক জেসন মোহাম্মাদের সঙ্গী হলেন কাইল মেয়ার্স। তবে সাকিবের ঘূর্ণিতে একদমই স্বচ্ছন্দ ছিলেন না ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন মোহাম্মাদ। সাকিবের পঞ্চম ওভারে ঘূর্ণি আর বাউন্সে পরাস্ত হয়ে স্টাম্পড হন জেসন মোহাম্মদ। ১৭ বলে ৩৬ রান করেন অধিনায়ক।

পরের ওভারে সাকিবের শিকার এনক্রুমা বোনার। তার সেই চিরচেনা আর্মটি ঠিক বুঝতেই পারেননি সদ্য ক্রিজে আসা বোনার। তিনি ৪ বলে শূন্য রানে আউট হন। এরপর ৩৩তম ওভার করতে এসে দ্বিতীয় বলে ঘূর্ণিতে আজারি জোসেপকে বোল্ড করেন সাকিব। জোসেপ ৭ বলে ৪ রান করেন। এই ৪ উইকেট নিয়ে সাকিবের প্রত্যাবর্তনটা হলো রাজার মতো।

একের পর এক উইকেট নেওয়ায় সাকিবকে থামাননি তামিম। একটানা ৭ ওভার পর্যন্ত বল করেছেন সাকিব। সাকিব বল করেছেন ৭.২ ওভার, রান দিয়েছেন মাত্র ৮ রান, মেডেন নিয়েছেন ২ ওভার, এরই সাথে উইকেট নিয়েছেন ৪টি।

এই ম্যাচটি ছিল দেশের মাটিতে সাকিবের ১০০তম ম্যাচ। আর এই ম্যাচে ১৫০ উইকেটের কীর্তি গড়লেন অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

আজ ব্যাট হাতে তেমন জ্বলে উঠতে পারেননি সাকিব। তবে ১৯ রান করেও ম্যাচ সেরা হয়েছেন এই সেরা অলরাউন্ডার। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?