ম্যানইউকে হারিয়ে লিগ কাপের ফাইনালে ম্যানসিটি

প্রকাশ : ০৭ জানুয়ারি ২০২১, ১৫:০৫

সাহস ডেস্ক

লিগ কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে তাদেরই মাঠে হারিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো ফাইনালে উঠেছে ম্যানচেস্টার সিটি। ২০১৪ সাল থেকে ধরলে এর আগের সাত ফাইনালের মধ্যে পাঁচবারই শিরোপা লড়াই করেছে সিটি। চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পাঁচবার!

বুধবার (৬ জানুয়ারি) ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মর্যাদার এই ‘ম্যানচেস্টার ডার্বি’তে ইউনাইটেডকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে করোনার প্রকোপ বাড়ায় বেশ ভালো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল সিটি। ৮ খেলোয়াড় সংক্রমিত হওয়ায় সিটি ছিল সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ক্লাবগুলোর একটি। ইউনাইটেডের মুখোমুখি হওয়ার আগে তাই মনস্তাত্ত্বিকভাবে পিছিয়ে থাকার কথা স্বীকারও করেছিলেন সিটি কোচ পেপ গার্দিওলা। ইংলিশ সেন্টার ব্যাক জন স্টোনস দারুণ খেলেছেন সিটির রক্ষণভাগে।

এদিন প্রথমার্ধে গোলশূন্যতে বিরতিতে যায় দু’দল। বিরতির পর ৫০ মিনিটে ওলে গুনার সুলশারের শিষ্যদের সেট পিসে দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে গোলও করেন স্টোনস। ফিল ফডেনের ফ্রি কিক থেকে গোলটি করেন তিনি। সিটির হয়ে ১ হাজার ১৬২ দিন পর গোল পেলেন তিনি। ক্লাবটির হয়ে তাঁর সর্বশেষ গোল ২০১৭ সালের নভেম্বরে চ্যাম্পিয়নস লিগে নাপোলির বিপক্ষে।

এরপর ম্যাচের ৮৩ মিনিটে সিটির হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন ফার্নান্দিনহো। তবে স্টোনস ‘আত্মঘাতী’ গোলও করেছিলেন। কিন্তু ইউনাইটেড তারকা মার্কাস রাশফোর্ড অফসাইড থাকায় গোলটি বাতিল করে দেন রেফারি। সিটি মিডফিল্ডার ইকায় গুন্দোগানের গোলও অফসাইডের কারণে বাতিল হয়। পরে আর কোনো গোল না হলে এই ২-০ গোলের জয় নিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে সিটিজেনরা।

আগামী ২৫ এপ্রিল লিগ কাপের ফাইনালে হোসে মরিনহোর টটেনহাম হটস্পারের মুখোমুখি হবে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটি।

ফাইনালে হোসে মরিনিওর টটেনহামকে হারাতে পারলে লিভারপুলের টানা চারবার লিগ কাপ জয়ের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলবে গার্দিওলার দল। ২০১১ সালের পর এই প্রথমবারের মতো পুরোনো ‘শত্রু’র মুখোমুখি হবেন গার্দিওলা। বার্সেলোনার কোচ থাকতে ৯ বছর আগে কোপা ডেল রে ফাইনালে মরিনিওর রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরেছেন এই স্প্যানিশ কোচ। ওদিকে ইউনাইটেড কোচ ওলে গুনার সুলশারের মন ভালো থাকার কথা নয়। গত ১২ মাসে এ নিয়ে চারটি সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে পড়ল তার দল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?