লিভারপুলের পথের কাঁটা ভিএআর

প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৩:১৭

সাহস ডেস্ক

দলে করোনার হানা ও চোট নিয়ে হিমসিম খাচ্ছেন কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। মূল একাদশের অধিকাংশ খেলোয়াড় ইনজুরিতে ছিটকে গেছে। একাদশ সাজাতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে কোচকে। সে সঙ্গে যোগ হয়েছে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর)। এ মৌসুমে বেশ কয়েকবার লিভারপুলের পথের কাঁটা হয়েছে ভার (ভিএআর)। কাল ব্রাইটনের বিপক্ষে লিভারপুলের বড় প্রতিপক্ষ হয়ে উঠল প্রযুক্তি। দুটি গোল বাতিল করেছে। প্রতিপক্ষকে উপহার দিয়েছে পেনাল্টি। আর তাতে আরও একবার পয়েন্ট খুইয়ে মাঠ ছেড়েছে লিভারপুল।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) ফালমার স্টেডিয়ামে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে স্বাগতিক ব্রাইটনের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে লিভারপুল।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই ভিএআর লিভারপুলের পথের কাঁটা হয়েছিল। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন মোহামেদ সালাহ। কিন্তু ভিএআর ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ব্যবধানে এগিয়ে থাকতে দেখেছে সালাহকে। ফলে বাতিল হয়েছে সে গোল।

এর আগে ম্যাচের ২০ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি পেয়ে যায় ব্রাইটন। কনোলির দিকে ফ্লিক করে বল পাঠিয়েছিলেন বিসোমা। ওদিকে বলে পা ছোঁয়াতে গিয়ে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় কনোলিকে নিজেদের বক্সে ফেলে দেন লিভারপুলের নেকো উইলিয়ামস। পরে পেনাল্টি নেওয়ার দায়িত্ব পেয়েছিল নিল মপে। আলিসন ভুল দিকে ঝাঁপালেও সেখান থেকে গোল করতে পারেননি। ব্রাইটনের মিডফিল্ডার মপে।

শুরুর দিকে ব্রাইটনকে পেনাল্টি উপহার দেওয়া তরুণ রাইট-ব্যাক নেকো উইলিয়ামসকে তুলে নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে জর্ডান হেন্ডারসনকে নামান ক্লপ। লিভারপুলের খেলাও গতি ফিরে পায়। ম্যাচের ৬০ মিনিটে আসে কাঙ্ক্ষিত গোলও। প্রতিপক্ষের ছোট ডি-বক্সের সামনে থাকা দিয়োগো জোতার দিকে বল পাঠিয়ে দেন সালাহ। আর ডিফেন্সের জটলা থেকেই বল দারুণ দক্ষতায় জালে জড়িয়ে দেন এই মৌসুমেই লিভারপুলে যোগ দেওয়া পর্তুগিজ স্ট্রাইকার।

পরে ম্যাচের ৬৪ মিনিটে সালাহকে তুলে নিয়ে মানেকে নামান ক্লপ। কিন্তু এর মিনিট দশেক পরেই দলের ইনজুরিতে পড়াদের তালিকায় নাম লেখান জেমস মিলনার। চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি।

ম্যাচের ৮৩ মিনিটে রবার্টসনের দুর্দান্ত ফ্রি-কিকে বল পেয়ে ব্রাইটনের গোলরক্ষকে ফাঁকি দিয়ে জালে জড়িয়ে দেন মানে। কিন্তু এবারও ভিএআর-এর সাহায্যে অফসাইডের সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। গোল বাতিল হয়ে যায়।

ভিএআর-এর কারণে দুই গোল বাতিল হওয়ার ধাক্কা সামলানোর পরও নির্ধারিত সময় পর্যন্ত জেতার পথেই ছিল লিভারপুল। কিন্তু যোগ করা সময়ের শুরুতেই নিজেদের বক্সে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে ব্রাইটনের ওয়েলবেকের পায়ে লাথি মেরে বসেন রবার্টসন। ভিএআর-এর সাহায্যে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। যদিও রিপ্লেতে দেখা গেছে লাথিটা ইচ্ছে করে মারেননি রবার্টসন।

এদিকে পেনাল্টি নিতে দেরি করানোর কারণে হলুদ কার্ড দেখেন লিভারপুলের গোলরক্ষক আলিসন। পরে পাস্কাল গ্রোর নেওয়া শটও ঠেকাতে ব্যর্থ হন তিনি। ব্রাইটনের জার্মান মিডফিল্ডার শট নেন ডান দিকে, আলিসন ঝাঁপ দেন ডানে। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় ক্লপের দলকে।

এই ড্রয়ে ১০ ম্যাচে ২১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে লিভারপুল। এক ম্যাচ কম খেলে ২০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়তে আছে টটেনহাম। টটেনহামের সমান ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিনে আছে চেলসি। সমান ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থস্থানে আছে লেস্টার সিটি। সমান ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৫ম স্থানে আছে সাউথদাম্পটন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?