শুরুর একাদশে না থেকেও সিরিজ সেরা সুফিল

প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর ২০২০, ২০:৪৪

সাহস ডেস্ক

নেপালের বিপক্ষে দুই ম্যাচের মুজিব বর্ষ আন্তর্জাতিক সিরিজের আজ দ্বিতীয় ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ। এর আগে প্রথম ম্যাচে নেপালকে ২-০ গোলের হারিয়েছেল স্বাগতিকরা।

আজ মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) বাঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে বাংলাদেশ। গত শুক্রবার একই মাঠে প্রথম ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সে ম্যাচে ২-০ গোলে জিতেছিল জামাল ভূঁইয়ার দল।

তবে এই সিরিজের সিরিজসেরা কে হয়েছেন এমনটা বলতেই সবার মনে পরবে প্রথম ম্যাচে করা মাহবুবুর রহমান সুফিলের গোলটির কথা। প্রায় একক প্রচেষ্টায় অসাধারণ ড্রিবলিংয়ের পর ঠাণ্ডা মাথার ফিনিশিংয়ে বল জালে জড়িয়েছিলেন তিনি।

শুক্রবারের ম্যাচটিতে বাংলাদেশ দল তখন ১-০ গোলে এগিয়ে। ম্যাচের আয়ু বাকি ছিল মাত্র ১১ মিনিট। বাম পাশ দিয়ে ডিফেন্ডার রহমত মিয়ার বাড়ানো বলটি প্রায় মাঝমাঠ থেকে ধরে ক্ষিপ্রগতিতে এগিয়ে যান সুফিল। পরে ডি-বক্সের মধ্যে নেপালি ডিফেন্ডাররা ঘিরে ধরলেও কোনাকুনি শটে বল পাঠিয়ে দেন জালে।

সুফিলের এই গোলটিকেই বলা চলে পুরো সিরিজের হাইলাইট। এছাড়া দ্বিতীয় ম্যাচেও অন্তত তিনবার নেপালের রক্ষণে হানা দিয়েছিলেন ২০ নম্বর জার্সি পরিহিত এ খেলোয়াড়। অন্তত দুইবার সতীর্থদের উদ্দেশ্যে বানিয়ে দিয়েছিলেন বল, কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারেননি সাদ উদ্দিন- ইয়াসিন খানরা।

প্রথম ম্যাচে দ্বিতীয় গোলের পর পরের ম্যাচে গোল না পেলেও, ভালো খেলার পুরস্কার ঠিকই পেয়েছেন মাহবুবুর রহমান সুফিল। দ্বিতীয় ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার তথা সিরিজসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার তুলে দেয়া হয়েছে সুফিলের হাতে।

অথচ দুই ম্যাচের একটিতেও শুরুর একাদশে ছিলেন না ২১ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ড। দুই ম্যাচেই দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে সুমন রেজার পরিবর্তে মাঠে নামানো হয় তাকে। দুই ম্যাচ মিলে মোটে এক ম্যাচের সমান বা ৯০ মিনিট খেলতে পারলেও, নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ ঠিকই দিয়েছেন সুফিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?