x

এইমাত্র

  •  করোনাভাইরাস: বাংলাদেশে ষষ্ঠ ব্যক্তি মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত তিনজন
  •  জাপানে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের যোগাযোগের অনুরোধ
  •  মৃত্যুর সংখ্যায় চীনকে ছাড়ালো যুক্তরাষ্ট্র, ট্রাম্প বলছেন 'খুবই বেদনাদায়ক' সপ্তাহ আসছে

করোনাভাইরাস: ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে ‘শাহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’

প্রকাশ : ২৩ মার্চ ২০২০, ১৩:৫৮

সাহস ডেস্ক

চীনের উহান থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রামণে আজ গোটা বিশ্ব স্থবির। প্রতিদিন জ্যামিতিক হারে বাড়ছে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। এত কিছুর পরও, উপমহাদেশের মানুষই যেন অসচেতনতায় এগিয়ে।

তাই নিজ দেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনাভাইরাস বিষয়ে সতর্কতা ও প্রয়োজনীয় দ্রব্য সরবরাহের জন্য এবার এগিয়ে এসেছেন সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি। নিজের দাতব্য প্রতিষ্ঠান 'শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন' এর মাধ্যমে কাজটি করছেন তিনি।

ব্যাপারটা নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে অনুসারীদের জানিয়েছেন আফ্রিদি। একটা ছবি পোস্ট করেছেন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, মুখে মাস্ক পরে সাধারণ জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি, জনমনে বাড়াচ্ছেন সচেতনতা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য পারস্পরিক সহযোগিতা ও সচেতনতা সৃষ্টির কোনো বিকল্প নেই বলে মনে করেন তিনি।

আফ্রিদি বলেন, ‘এই সংকটময় মুহূর্তে আমাদের সকলের দায়িত্ব একে অপরকে সহায়তা করা, সচেতনতা সৃষ্টি করা। সতর্কতামূলক তথ্য সকলকে দেওয়ার মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর বিপক্ষে আমি আমার দায়িত্ব পালন করছি। আমার ‘শহীদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন’ স্বাস্থ্য বিষয়ক অভিযানে মন দিয়েছে।’

শুধু কথা বলেই শেষ করেননি আফ্রিদি। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও আইসোলেশান ওয়ার্ডও খুলছে আফ্রিদির এই দাতব্য প্রতিষ্ঠান।

তিনি বলেন, ‘অনেক জায়গায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার বক্স স্থাপন করা হয়েছে এবং জনগণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নানা ধরনের নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে। করোনাভাইরাসের উপসর্গ যাদের মধ্যে দেখে গেছে, কিংবা যারা সন্দেহের তালিকায় আছে তাঁদের রাখার জন্য একটি আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। আমাদের ফাউন্ডেশনের মিশন ‘অপরাজিত থাকার আশা’। এই লক্ষ্যে আমরা জীবিকা হারানো সকলকেই প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য ও জিনিসপত্র দিয়ে সহযোগিতা করছি। যাতে তারা এগুলো নিয়ে এই সংকটময় সময়টা পার করতে পারে। আমি সবাইকে অনুরোধ করব নিজেদের যত্ন নিতে এবং বাড়িতে নিরাপদে থাকতে।’

আফ্রিদি বলেন, ‘এ সময় আমাদের আল্লাহর দেখানো পথে চলা উচিত। সামনে রমজান মাস আসছে। এখন আবার করোনার প্রভাবে দেশের পরিস্থিতি ভালো না। সমাজের বিত্তবান লোকেরা বেশি বেশি জিনিসপত্র কিনে নিজেদের দখলে রেখেছে। ফলে গরিব মানুষরা কিছুই পাচ্ছে না। দোকানে গেলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার পাওয়া যাচ্ছে না। মাস্ক পাওয়া যাচ্ছে না কারণ বিত্তবানরা সবাই সব কিছু নিজেদের দখলে রেখেছে। বাজারে পাওয়া গেলেও তার দাম এত বেশি যে গরিবরা তা কিনতে পারছে না।’

আফ্রিদি আরো বলেন, ‘আমি আফ্রিদি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এখানে একটি গ্রামে এমন মানুষদের সাহায্য করতে এসেছি করোনার কারণে যাদের আয় বন্ধ হয়ে গেছে। সৃষ্টিকর্তা আমাকে অনেক দিয়েছেন যার কারণে চেষ্টা করছি অসহায় মানুষদের সাহায্য করতে। যাতে করে কাল আল্লাহ আমাকে প্রশ্ন না করে বসে আমি তোমাকে অনেক দিয়েছি, তুমি অসহায়দের জন্য কি করেছ?’

শুধু শহীদ আফ্রিদিই নন, অন্যান্য খেলার বিভিন্ন তারকাও এগিয়ে আসছেন করোনা আক্রান্তদের সাহায্যার্থে। বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেবান্ডফস্কি যেমন, এক লাখ ইউরো দান করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত