x

এইমাত্র

  •  করোনা সঙ্কটে কর্মস্থলে অনুপস্থিত:ফেঁসে যাচ্ছেন ১১ কর্মকর্তা
  •  করোনা: বাংলাদেশে শুধু বয়স্ক নয়, ঝুঁকিতে সব বয়সীরাই
  •  বিএসএমএমইউ’র অধ্যাপক ও মেয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত
  •  লকডাউনের মধ্যে বিয়ে করে বরখাস্ত হলেন সরকারি কর্মকর্তা
  •  মসজিদে পাঁচের অধিক মুসল্লি, লক্ষ্মীপুরে ইমাম আটক

হরলান্ডের হ্যাটট্রিকের পর জোড়া গোল

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৪:২২

সাহস ডেস্ক

এই মৌসুমের শুরুতে অস্ট্রিয়ান ক্লাব রেড বুল সালজবুর্গের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগেই নিজের জাত চিনিয়েছেন আর্লিং ব্রট হরলান্ড। স্বভাবতই, টানাটানি পড়ে গিয়েছিল এই তরুণ স্ট্রাইকারকে নিয়ে। হরলান্ডও নিজের ক্যারিয়ারের পরবর্তী ধাপে পা দিতে দেরি করেননি, যোগ দিয়েছেন জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ডে। প্রথম দুই ম্যাচেই পাঁচ গোল করে জানিয়ে দিলেন, কেন এত মাতামাতি তাঁকে ঘিরে!

লিগ অভিষেকে পুরো নব্বই মিনিট খেলতে পারেননি হরলান্ড। বেঞ্চে ছিলেন। দল ৩-১ গোলে পিছিয়ে থাকার পর ৫৬ মিনিটে মাঠে নামানো হয় তাঁকে। নেমেই ২৩ মিনিটের মধ্যে হ্যাটট্রিক করে দলকে বাঁচিয়েছেন, অগসবুর্গের বিপক্ষে দলকে এনে দিয়েছেন ৫-৩ গোলের রোমাঞ্চকর এক জয়। গত রাতেও পাঁচ গোল দিয়েছে ডর্টমুন্ড, এবারও গোলের খাতায় নাম লিখিয়েছেন হরলান্ড। তাও একবার না, দুবার। গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও হরলান্ড প্রথম একাদশে ছিলেন না। ৬৫ মিনিটে মাঠে নেমেছেন বেলজিয়ান উইঙ্গার থরগান হ্যাজার্ডের বদলে। নেমেই বাজিমাত।

৭৭ মিনিটে প্রথম গোল করেন হরলান্ড। তাঁর ঠিক দশ মিনিট পরেই মাহমুদ দাহুদের পাস থেকে দ্বিতীয় গোল করেছেন। অর্থাৎ জোড়া গোল করতে সময় নিয়েছেন ২৩ মিনিট। সেদিন অগসবুর্গের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন ২৩ মিনিটে, সব মিলিয়ে খেলেছিলেন ৩৪ মিনিট। দুই ম্যাচে সব মিলিয়ে পাঁচ গোল করা পর্যন্ত ডর্টমুন্ডের হয়ে খেলেছেন ৫৯ মিনিট। তবে পাঁচ গোল পেতে তাঁর সময় লেগেছে ৫৭ মিনিট।  বুন্দেসলিগার ইতিহাসে এত দ্রুত পাঁচ গোল করার কীর্তি নেই কারওর। এই হারে গোল করতে থাকলে প্রতি নব্বই মিনিটে ৭.৯ টা করে গোল করবেন হরলান্ড!

এবারই রেড বুল সালজবুর্গের হয়ে প্রথম খেলতে এসেছিলেন চ্যাম্পিয়নস লিগ, এসেই করেছেন বাজিমাত। গ্রুপপর্বের প্রথম পাঁচ ম্যাচেই করেছিলেন ৮ গোল। এর মধ্যে আবার অভিষেকে হ্যাটট্রিকও করেছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগের মতো কঠিন প্রতিযোগিতার মঞ্চে আলো ছড়ানো এই স্ট্রাইকারের পেছনে সেই তখন থেকেই লেগে ছিল একটি বা দুটি নয়, ৪০ ক্লাব! শেষ পর্যন্ত শেষ হাসিটা হেসেছে ডর্টমুন্ডই। ২০ মিলিয়ন ইউরোতে জার্মান ক্লাবে এই জানুয়ারিতেই যোগ দিয়েছেন হরলান্ড। অর্ধেক মৌসুম সারতে না সারতেই সালজবুর্গ-ডর্টমুন্ড মিলিয়ে ছয়টা হ্যাটট্রিক হয়েছে হরলান্ডের!

হরলান্ডের এই দুরন্ত ফর্ম দেখে ঠাট্টা করতে ভোলেননি সতীর্থ সুইস গোলরক্ষক রোমান বুর্কি, ‘কপাল খারাপ যে ওর গোল করার হার আস্তে আস্তে কমে যাচ্ছে। প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিক করল, পরের ম্যাচে দুটি—আশা করি এই ধারা বজায় রেখে সামনের ম্যাচে সে একটা গোল করবে না!’

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত