x

এইমাত্র

  •  করোনাভাইরাসে নতুন আক্রান্ত আরও পাঁচজন
  •  করোনা: মক্কা-মদিনায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য কারফিউ
  •  ঢামেকে আইসোলেশনে দু'জনের মৃত্যু, করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ
  •  করোনাভাইরাস: সতর্ক করে চিঠি লেখা ক্যাপ্টেনকে অপসারণ করলো মার্কিন নৌবাহিনী
  •  করোনোভাইরাস: সারাবিশ্বে আক্রান্ত সংখ্যা ১০ লাখের বেশি, মৃতের সংখ্যা ৫৩ হাজার ছাড়ালো

শেষ উইকেটে লড়েও ইংলিশদের হারাতে পারল না প্রোটিয়ারা

প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:১৬

সাহস ডেস্ক

ওভারের পঞ্চম বল। মার্ক উডের ইয়র্কার ডেলিভারিতে তাল সামলাতে না পেরেও রানের জন্য দৌড় দিয়েছিলেন কেশভ মহারাজ। উদ্দেশ্য, শেষ বলটা ননস্ট্রাইকার ডেন প্যাটারসনকে দিয়ে পরের ওভারে স্ট্রাইকে যাওয়া।

কিন্তু মহারাজের সেই দৌড় ২২ গজ পুরোটা শেষ হলো না। মিড অন থেকে বল নিয়ে দ্রুত থ্রো করেন স্যাম কুরান, ভেঙে যায় স্ট্যাম্প। তাতেই শেষ দশম উইকেটে লোয়ার অর্ডার দুই ব্যাটসম্যানের ‘যুদ্ধ’ জয়ের চেষ্টা।

শেষ উইকেটে ৯৯ রানের জুটি গড়েও দলকে ইনিংস পরাজয়ের হাত থেকে বাঁচাতে পারলেন না মহারাজ-প্যাটারসন। পোর্ট এলিজাবেথে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ইংল্যান্ডের কাছে ইনিংস এবং ৫৩ রানে হেরেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এই জয়ে চার ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড।

দক্ষিণ আফ্রিকার এই পরাজয়টা বলতে গেলে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল টেস্টের চতুর্থ দিনেই। ফলোঅনে পড়ে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৬ উইকেটে ১০২ রানে চতুর্থ দিন শেষ করেছিল স্বাগতিকরা। ইনিংস পরাজয় এড়াতে তখনও প্রয়োজন ১৮৮ রান, হাতে মাত্র ৪টি উইকেট, তার ওপর নেই কোনো স্বীকৃত ব্যাটসম্যান।

পঞ্চম দিনের সকালে তৃতীয় বলেই ভারনন ফিলেন্ডারকে (১৩) তুলে নেন স্টুয়ার্ট ব্রড। এরপর কাগিসো রাবাদাকে নিয়ে ৮ ওভারের মতো কাটিয়ে দেন মহারাজ। ১৬ রান করে রাবাদা মার্ক উডের শিকার হলে ভাঙে এই জুটি। পরে আবার নর্টজেকে নিয়ে সাড়ে ৬ ছয় ওভার পার মহারাজের। ৫ রান করে ডম বেসের বলে বোল্ড হন নর্টজে।

১৩৮ রানে ৯ উইকেট হারানো দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস পরাজয় তখন কেবল সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু শেষ উইকেটে এসে ইংলিশ বোলারদের ঘাম ঝরিয়ে ছাড়েন মহারাজ-প্যাটারসন। তাদের ৯৯ রানের জুটিটি একটা সময় এমনই চোখ রাঙাচ্ছিল, মনে হচ্ছিল ইনিংস পরাজয়ের লজ্জাও এড়িয়ে ফেলবে স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯০ করতে পারলেই হতো। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। ২৩৭ রানে থেমেছে প্রোটিয়ারা। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে রানআউট হওয়া মহারাজ করেন ৭১ রান। ৩৯ রানে অপরাজিত থেকে যান প্যাটারসন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস: ৪৯৯/৯ ডিক্লে. (অলি পোপ ১২৫*, বেন স্টোকস ১২০, জ্যাক ক্রলি ৪৪, স্যাম কুরান ৪৪; কেশভ মহারাজ ৫/১৮০)
দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ইনিংস: ২০৯/১০ (কুইন্টন ডি কক ৬৩, ডিন এলগার ৩৫, ভারনন ফিলেন্ডার ২৭; ডম বেস ৫/৫১)
দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয় ইনিংস (ফলোঅন) : ২৩৭/১০ (কেশভ মহারাজ ৭১, ড্যান প্যাটারসন ৩৯*, ফাফ ডু প্লেসিস ৩৬; জো রুট ৪/৮৭, মার্ক উড ৩/৩২)

ফল: ইংল্যান্ড ইনিংস এবং ৫৩ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা: অলি পোপ (ইংল্যান্ড)।

তথ্যসূত্র: জাগো নিউজ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত