x

এইমাত্র

  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ২৪৮৭ জন, মৃত ৩৪ জন

নীলের মাঝেই খেলবে বাংলার সবুজ

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:৩০

একটা টিকিটের জন্যে হন্যে হয়ে ঘুরছে সমর্থকেরা। জানা গেল, প্রায় ৬৫ হাজার টিকিট কেনা শেষ। তবুও টিকিট নামক সোনার হরিণ পাওয়ার আশায় গুঁড়েবালি দিলে তো চলবে না কলকাতা বাসীর।

খেলা নিয়ে ভারত কিংবা বাংলাদেশ; দু'দেশেরই আবেগটা চোখে পড়ার মত। তবে আজকের উন্মাদনা ক্রিকেট নিয়ে নয়। রোহিত শর্মা কিংবা বিরাট কোহলিরা মাঠ কাঁপাতে কলকাতায় আসেননি। এসেছেন সুনীল ছেত্রী। হ্যা, ভারতীয় ফুটবল দল আর দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী এলেও মাঠ ছাড়িয়ে পুরো কলকাতাই কেঁপে ওঠে।

আমাদের দেশে সাকিব-তামিম-মুশফিকরা মিরপুরের মাঠে নামলে যেমন গ্যালারি গমগম করে সেখানে মতিঝিলের ফুটবল পাড়ায় মামুনুল-জামালদের খেলায় থাকে খাঁ খাঁ করা একটা স্টেডিয়াম। হাজার তিরিশের ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়ামে মানুষ গুনে ফেলা যায় খেলার প্রথম ৪৫ মিনিটেই। আবাহনী-মোহামেডানের খেলায় মেশা উন্মাদনা থাকে বুড়োদের কথায় আর আফসোসে।

'ভারতীয় ফুটবলের মক্কা' নামে খ্যাত কলকাতায় যুব ভারতীর মাঠে মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) মাঠে নামছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ আর এশিয়ান কাপের এই বাছাইয়ে জিততে পারলে পালটে যেতে পারে বাংলাদেশের ফুটবল।

র‍্যাংকিংয়ে এক সময় সমানে সমানে থাকা দুই দলের ব্যবধান এখন আকাশ পাতাল। বিশ্ব র‍্যাংকিংয়ে মাঝামাঝি মানের দল যেখানে ভারত সেখানে বাংলাদেশের অবস্থান তলানিতে। তবে তাতে ভ্রুক্ষেপ নেই বাংলাদেশের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়ার। 

"আমার খেলোয়ারদের বলেছি ম্যাচটা উপভোগ করতে। যদিও ম্যাচে ভারতই ফেভারিট। তবে, ম্যাচটা জিততে পারলে আমাদের ফুটবলটাই বদলে যাবে। আর সেই সুযোগটাই আমরা নিতে চাই।" ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন বাংলাদেশ ফুটবল দলের কাপ্তান জামাল ভুঁইয়া।

সল্টলেক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ এর আগে ভারতের মুখোমুখি হয়েছে ১৯৮৫ সালে। দীর্ঘ ৩৪ বছরে বদলেছে অনেক কিছুই। পরিসংখ্যান ঘেটে দেখলে দেখা যায় বাংলাদেশের দুই জয়ের বিপক্ষে ভারতের জয় ১৫টা। দুই দলের ড্র হওয়া ম্যাচের সংখ্যা ১১টা। ৫ বছর আগে চিন্তা করলেও ম্যাচ গুলোর হিসেব পরিসংখ্যানে পাওয়া যাবেনা। কিন্তু সেই ভারত এখন যোজন যোজন দূরে। 

তবে কোচ জেমি ডে'র ছোঁয়ায় দেশের ফুটবলেও একটা ঝড় আসার পূর্ব প্রস্তুতি চলছে। খেলোয়াড়রাও চাইছেন ঘাম ঝরাতে। সেই দৃষ্টি থেকে দেখলে সল্টলেকে যে একটা আগুনে ম্যাচ হতে পারে সেই আশংকা করা যায়।

ভারতীয় কোচের কথায় গ্যালারী কাণায় কাণায় ভরিয়ে তুলতে চায় নীলের সমর্থকেরা। সেই নীলের মাঝে খেলতে নামবে বাংলার সবুজেরা। এত নীলের মাঝে নিশ্চয়ই হারিয়ে যেতে চাইবে না ওই ১১ জন। 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত