আশা করি ইংল্যান্ডে মাউরার একটা মূর্তি হবে: এরিকসেন

প্রকাশ : ০৯ মে ২০১৯, ১৫:৩১

সাহস ডেস্ক

২৭ বছর বয়সী মিডফিল্ডার এরিকসেন বলেন, ‘আমাদের ফাইনালে নেওয়ার জন্য তার প্রাপ্য একটা (মূর্তি)। আমি আশা করি, ইংল্যান্ডে তার একটা মূর্তি হবে।’

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকেও দ্বিতীয় লেগে লুকাস মাউরার হ্যাট্রিকে ফাইনালে পৌঁছে গেছে টটেনহ্যাম হটস্পার। লুকাস মোউরা। বিশ্ব ফুটবলের এখন সবচেয়ে আলোচিত নামের একটি। আয়াক্সের বিপক্ষে যা করেছেন বলতে গেলে তা অবিশ্বাস্যই। দ্বিতীয় লেগে দুই গোলে পিছিয়ে পড়া টটেনহ্যামকে হ্যাটট্রিক করে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে তুলেছেন এই ব্রাজিলিয়ান রাইট উইঙ্গার।

৮ মে (বুধবার) দিবাগত রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ চারের ফিরতি লেগ খেলতে আয়াক্সের মাঠ আমস্টারডামে গিয়েছিল টটেনহ্যাম। ঘরের মাঠে ১-০ গোলে হারায় ফাইনালে যেতে হলে দ্বিতীয় লেগে ২-১ ব্যবধানে জিততে হতো স্পার্সদের। কিন্তু প্রথমার্ধেই উল্টো দুই গোল হজম করে বসে মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা।

দ্বিতীয়ার্ধে সেই খাদ থেকে টটেনহ্যামকে উদ্ধার করেন মাউরা। ঘুরে দাঁড়িয়ে দুই গোল শোধ করার পর যোগ করা সময়ের শেষ সেকেন্ডে অবিশ্বাস্য এক গোল করে বসেন তিনি। দুই লেগ মিলিয়ে ৩-৩ ব্যবধান থাকলেও অ্যাওয়ে গোলের সুবাদে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে ওঠে স্পার্সরা।

অনবদ্য এই কীর্তির জন্য মাউরার মূর্তি চান সতীর্থ ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন। ড্যানিশ মিডফিল্ডারের মতে টটেনহ্যামকে অবিশ্বাস্যভাবে ফাইনালে তোলার জন্য মোউরার ‘মূর্তি হওয়া প্রয়োজন’।

এরিকসেন বলেন, ‘এটা অসম্ভব একটা ম্যাচ। আমরা সত্যি অনেক পিছিয়ে পড়েছিলাম, আমরা লড়াইয়ে ফিরতে চেয়েছিলাম, সত্যি আমরা ভাগ্যবান। আমরা ফাইনালে উঠেছি।’

মোউরা অবশ্য এখনো এরিকসেনের সঙ্গে গলা মেলাননি। তবে অবিশ্বাস্য এক রূপকথা লেখার গল্পটা জানালেন এভাবে, ‘এটা আমার ক্যারিয়ারের সেরা মুহূর্ত।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
আপনি কী মনে করেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ সন্তোষজনক?