x

এইমাত্র

  •  সাহস২৪.কম এর পথচলার ৫ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সকল পাঠক-লেখক-বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা

প্লান বি? নাকি প্লান বি চৌধুরী!

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৯

সাহস ডেস্ক

‘লড়াই করার দিন শেষ, শান্তি সুখের বাংলাদেশ’ স্লোগান নিয়ে ‘প্লান বি’ বাস্তবায়ন করতে চাচ্ছেন ‘বিকল্প ধারা বাংলাদেশ’ দলের নেতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সন্তান মাহি বি চৌধুরী।

সম্প্রতি মাহি চৌধুরীর প্লান বি নিয়ে একটা ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে তিনি জ্বালাময়ী বক্তব্য দিয়ে এদেশের ‘আই হেইট পলিটিক্স’ প্রজন্মের থেকে ভালো কিছু লাইক, শেয়ার, বাহবা কুড়িয়েছেন। এবার তার বক্তব্যের একটু ব্যবচ্ছেদ করি-

তার বক্তব্য- ‘স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরও কেন প্রশ্ন উঠবে ৭১ এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার, স্বাধীন দেশে আমরা কার বিরুদ্ধে হাতিয়ার তুলবো’।

৭১ এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার ‘স্লোগানটি মূলত রাজকারের ফাঁসির দাবীতে গড়ে ওঠা এই গণজাগরণ মঞ্চের সময় আলোড়ন তুলেছিল। তাহলে কি আমরা ধরে নেব আপনার আক্রমণ রাজাকারের ফাঁসির দাবীতে এদেশের মানুষেরা যে গণজোয়ার দেখিয়েছিলো সেদিকে? অবশ্য, আইট হেইট পলিটিক্স প্রজন্ম না জানলেও আমরা যারা একটু জানার চেষ্টা করি এদেশের রাজনীতি নিয়ে। তারা কিন্তু জানে আপনি হচ্ছেন সেই মাহি বি চৌধুরী যিনি এদেশের সংসদ সদস্য ছিলেন এবং বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর সাথে জোট বেধে সরকার ও দেশ পরিচালনা করেছিলেন। আপনারাই কুখ্যাত রাজাকার সাঈদী, নিজামী, মুজাহিদদের গাড়িতে তুলে দিয়েছিলেন এদেশের লাল-সবুজের পতাকা। তাহলে এই স্লোগানের উপর আপনার এতো ক্ষোভ কি এজন্যই? আপনার বাবা তো আবার সেই দেশবিরোধী অপশক্তির শক্তিবলে রাষ্ট্রপতিও হয়েছিলেন। আমরা এই স্বাধীন দেশে তার বিরুদ্ধে হাতিয়ার তুলবো যারা দেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর দোসর থাকার পরেও যাদের হাতে তুলে দিয়েছিলেন এদেশের মানচিত্র। যা অর্জিত হয়েছিলো আমাদের ৩০ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে।

তারপরের বক্তব্য – বাঁধা আসবে যেখানে লড়াই হবে সেখানে। লড়াই লড়াই লড়াই চাই, লড়াই করে বাচতে চাই। এই প্রজন্ম(!) আর লড়াই করার রাজনীতি চায়না।

স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে আপনারা যখনই দেশবিরোধী কাজে লিপ্ত হবার সুযোগ করে দেবেন আমরা সেখনেই বাঁধা দেব। আমরা এই অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করেই বাঁচবো। দেশবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে দাড়ানো যদি রাজনীতি হয় তবে স্বাধীনতার ৪৭ না স্বাধীনতার ৭০ বছর পরেও আমরা লড়াই করার রাজনীতি করব তবুও স্বাধীনতা বিরোধীদের গাড়িতে আর পতাকা তুলে দিতে দেবনা আপনাদের।

তারপরের বক্তব্য, ‘দিয়েছি তো রক্ত, আরো দেব রক্ত। এই প্রজন্মকে জিজ্ঞেস করেন ওরা রক্ত দিতে চায় না’

আপনার ধারনা আবার ও ভুল মাহি চৌধুরী। আপনারা যতবার আমাদের দেশকে শকুনের হাতে তুলে দিতে চাইবেন আমরা ঠিক ততোবার রক্ত দিতে প্রস্তুত আছি।

আপনার প্লান বি টা কি প্লান বদরুদ্দোজা চৌধুরী নাকি সেটা আপনিই ভালো বলতে পারবেন। তবে আপনার জেনে রাখা দরকার এদেশের প্রজন্ম শুধু আই হেইট পলিটিক্স প্রজন্মই নয় এরা প্রয়োজনে গণজোয়ার ঘটাতে পারে, শকুনের টুটি চেপে ধরতে পারে। এই প্রজন্ম শুধু ঘরে বসে গেমস খেলেই দিন পার করে দেয় না, দেশের প্রশ্নে এরা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিতে পারে। যদি সন্দেহ থাকে তবে আরেকবার দেশবিরোধী চক্রকে এদেশে বাস্তবায়ন করার চিন্তা করে দেখুন, আপনাদের চিন্তাজগতের বিরুদ্ধে কাজ করবে যাবে এ প্রজন্ম।

আপনার প্লান বি এর প্রতিপাদ্য বিষয় থেকে কি আমরা বুঝে নেব। আপনার ইচ্ছা একটা ঘুমন্ত মানসিকতার প্রজন্ম তৈরি করা? যারা দেশের প্রশ্নেও থাকবে নিশ্চুপ, যারা দেশের সংকটকালেও রেস্টুরেন্টে বসে চেক ইন দিয়ে আর ফেসবুকে আপনার আজগুবী জ্বালাময়ী বক্তব্য শেয়ার দিয়ে বলবে আমি এখন ঘুমিয়ে থাকি, মাহি চৌধুরি তার প্লান বি চৌধুরী নিয়ে সবকিছু পরিবর্তন করে দেবে। আমি ফেসবুকে তার ভিডিও সেয়ার দিয়েই আমার দায়িত্ব পালন করেছি। তবে, আপনি ভুল ভাবছেন। এ জাতি লড়াই করে এনেছে পতাকা, আর সেই পতাকায় যাতে আর কোন শকুনের কুদৃষ্টি না পড়ে সেজন্য লড়াই করেই যাবে।

লেখক মোঃ পৃথিবী আলম রাজ
শিক্ষানবিস সাংবাদিক ও শিক্ষার্থী, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত