বঙ্গমাতার নামে ভৈরব সেতুর নামকরণের প্রস্তাব, শেখ রেহানার অসম্মতি

প্রকাশ : ০৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭:২৩

শেখ নাদীর শাহ্, খুলনা

নির্মাণাধীন ভৈরব সেতু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিবের নামে নামকরণের প্রস্তাব উত্থাপন করা হলেও তাতে সম্মতি দেননি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহেনা। গত ৬ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী দিঘলিয়ার নগরঘাট ফেরিঘাটসংলগ্ন ভৈরব তীরে মায়ের স্মৃতিবিজড়িত সম্পত্তির উপর নির্মিত গোডাউন ঘুরে দেখার প্রাক্কালে তার কাছে এ প্রস্তাবনা উত্থাপন করা হয়। বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন উক্ত সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থাকা স্থানীয় সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হায়দার আলী মোড়ল। শনিবার (৭ জানুয়ারি) বিকালে দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এ প্রস্তাবনা উত্থাপনের কথা জানান।

এ সময় তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর গোডাউন ভাড়া নেওয়া জুট টেক্সটাইলের মালিক মোঃ রবিউল ইসলাম সিকো এ অঞ্চলের পাট শিল্পের বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন। এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য সালাম মূর্শেদীও উপস্থিত ছিলেন। এক পর্যায়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, আপা আমি একটা কথা বলবো। উনি সম্মতি জানালে তিনি তাকে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে বলেন আপা ঐ যে ভৈরব সেতুর কাজ হচ্ছে, ঐ সেতুর নামটা আপনার মা বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে নামকরণ করলে ভালো হয়। এ সময় পাশে থাকা শেখ রেহানা বলেন, “না ভাই আমাদের পরিবারের কোন সদস্যের নামে আর কোন সেতু বা সড়কের নামকরণ করার ইচ্ছা আমাদের নেই”।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী রুপসা সেতু নির্মাণের শুরুটা কিভাবে হয়েছিলো তা তাদেরকে জানান। তিনি জানান, তখন দাতা সংস্থার কাছে ২টা সেতু নির্মেণের প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছিলো। পরবর্তীতে দাতা সংস্থার পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয় ২টা নয় তারা একটা সেতু করে দিবেন। আপনি নির্ধারণ করে দিলে সেটাই আমরা করবো। তখন আমি (প্রধানমন্ত্রী) এ অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের কথা ভেবে রুপসা সেতু তৈরীর প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করি”।

সাহস২৪.কম/এএম.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?