প্রতারণার মামলায় আওয়ামী লীগ নেতার ৬ কারাদণ্ড

প্রকাশ : ০৩ নভেম্বর ২০২২, ১৯:০০

সাহস ডেস্ক

৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকার প্রতারণার মামলায় সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান স.ম মোর্শেদ আলীকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডসহ সম পরিমান টাকা জরিমানা করেছে যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ আদালত। বৃহস্পতিবার (০৩ নভেম্বর)  আদালতে সাতক্ষীরার যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফারুক ইকবাল তার অনুপস্থিতিতেই এ রায় ঘোষণা করেন। সাজা প্রাপ্ত স.ম মোর্শেদ কলারোয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান। তিনি উপজেলার নাকিলা গ্রামের মৃত. চাঁদ আলী সরদারের পুত্র।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, কলারোয়ার কুশোডাঙ্গা গ্রামের নুর বক্সের পুত্র রবিউল ইসলামকে ২০১৩ সালে কাজিরহাট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের প্রতিশ্রুতিতে ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নেন স.ম মোর্শেদ। কিন্তু পরবর্তীতে নিয়োগ না দিয়ে প্রতারণা করতে থাকেন তিনি। কোন উপায় না পেয়ে অবশেষে ভুক্তভোগী রবিউল ইসলাম প্রতারণার অভিযোগে স.ম মোর্শেদ আলীর বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ওই বছরের ১৪ নভেম্বর একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নম্বর-১৫৭। মামলায় দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে আদালত বৃহস্পতিবার এ রায় প্রদান করেন।

মামলার রায়ে বাদী রবিউল ইসলাম সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তবে, অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান স.ম মোর্শেদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আংশিক সত্য। বিদ্যালয়ের তৎকালিন প্রধান শিক্ষক ও আমি নিয়োগের জন্য টাকা নিয়েছিলাম। কিন্তু নিয়োগ দিতে পারিনি। কিছু টাকা ফেরতও দিয়েছি। যেহেতু চেকটা আমার নামে ছিলো। সে কারণে রবিউল ইসলাম আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। রবি অথবা সোমবারের মধ্যে বিষয়টির সমাধান করা হবে।

সাহস২৪.কম/এএম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?