জামালপুরে মা-মেয়ে খুনের প্রধান সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তারের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৯:৩৮

সাহস ডেস্ক

জামালপুর সদর উপজেলার নান্দিনা বাদাম বাড়ীর জোসনা বেগম ও কাজুলী আক্তারের খুনের ঘটনায় প্রধান সন্দেহভাজন আসামি নিপুলের দ্রুত গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবিতে ঘন্টাব্যাপী সড়ক অবরোধ, মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। রবিবার (২ অক্টোবর) সকাল ১১টায় জামালপুর-মুক্তাগাছা আঞ্চলিক মহাসড়কের নান্দিনা বাজারে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। 

এসময় আন্দোলনকারীরা সড়ক অবরোধ করে। রাস্তার দুইপাশে দূরপাল্লার শত-শত গাড়ীসহ স্থানীয় গাড়ী চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে জামালপুর সদর থানা পুলিশের ওসি শাহনেওয়াজ ইমন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রধান সন্দেহভাজন নিপুল সহ অন্যান্য আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচারের আওতায় আনার আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী তাদের আন্দোলন স্থগিত করেন।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন জামালপুর জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য নজরুল ইসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি নওয়াব আলী সরকার, নওয়াব হোসেন জুয়েল, সুলতান আলী সহ  বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের প্রভাষক ডা. আদনান, রানাগাছা ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মানিক, কদর আলী এসময় দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করার দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।

এলাকাবাসী এবং রাজনৈতিক দলের উপস্থিত স্থানীয় নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, দ্রুত প্রধান সন্দেহভাজন নিপুলকে গ্রেপ্তার এবং দ্রুত বিচারের আওতায় না আনলে ভবিষ্যতে আরও কঠোর কর্মসূচি গ্রহণ করা হবে। নিহত জোসনার স্বামী, কাজুলীর পিতাও এসময় বক্তব্য রাখেন। নিহত কাজুলীর সহোদর মর্জিনা বক্তব্য দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন।

সদর থানার ওসি শাহনেওয়াজ ইমন উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, মামলার মোটিভ উদ্ধার করেছে পুলিশ, তদন্তের স্বার্থে এখনই বলা যাচ্ছে না। আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর মা-মেয়ে নিখোঁজ হয়ে পরদিন প্রথমে মেয়ের লাশ, তার পরেরদিন মা এর লাশ উদ্ধার করা হয়।

সাহস২৪.কম/এএম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?