ট্রেনের টিকিট নিয়ে কালোবাজারি হচ্ছে, অভিযোগ যাত্রীদের

প্রকাশ : ০৩ জুলাই ২০২২, ১৩:১৬

সাহস ডেস্ক

ঈদুল আজহা উপলক্ষে টানা তৃতীয় দিনের মতো ঢাকা (কমলাপুর) রেল স্টেশনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে। রবিবার (০৩ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হয়। ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েও টিকিট না পাওয়ায় কালোবাজারির অভিযোগ তুলেছেন যাত্রীরা। তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, চাহিদার তুলনায় টিকিটের পরিমাণ কম হওয়ায় যাত্রীরা টিকিট পাচ্ছেন না।

কমলাপুরে ভোর সাড়ে ৫টায় টিকিট লাইনে দাঁড়িয়েও টিকিট না পাওয়ায় যাত্রীরা বলেন, ভোরবেলা লাইনে দাঁড়িয়েও টিকিট না পাওয়ার অর্থ হল, অনিয়ম হচ্ছে, টিকিট কালোবাজারি হচ্ছে।

এদিকে কালোবাজারির যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার মাসুদ সারওয়ার বলেন, এখন যাত্রীদের চাপ বেশি। চাহিদার তুলনায় টিকিটের সংখ্যা অপ্রতুল। সেজন্য সংকট তৈরি হওয়া স্বাভাবিক। তবে কিছু অব্যবস্থাপনা আছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, এবার ঈদে ছয় জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হচ্ছে। গতবারের মত এবারও ৫০ শতাংশ টিকিট কাউন্টারে এবং বাকি ৫০ শতাংশ টিকিট মিলছে অনলাইনে।

কাউন্টার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৩ জুলাই ৭ জুলাইয়ের, ৪ জুলাই ৮ জুলাইয়ের এবং ৫ জুলাই ৯ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে। অন্যদিকে, ঈদের ফেরত টিকিট বিক্রি শুরু হবে ৭ জুলাই। ঈদ শেষে ফিরতি ট্রেনের ক্ষেত্রে ১১ জুলাইয়ের টিকেট পাওয়া যাবে ৭ জুলাই, ১২ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকেট ৮ জুলাই, ১৩ জুলাইয়ের টিকেট ৯ জুলাই এবং ১৪ ও ১৫ জুলাইয়ের টিকেট ১১ জুলাই পাওয়া যাবে।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কাউন্টারে এবং অনলাইনে টিকিট বিক্রি করা হবে। টিকিট কেনার জন্য যাত্রীদের নিশ্চিত জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি দেখিয়ে টিকিট কাটতে হবে।

সাহস২৪.কম/এএম/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?