খুলনায় দুই বোনকে হাত-মুখ বেঁধে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

প্রকাশ : ১৬ মে ২০২২, ১৬:২৭

শেখ নাদীর শাহ্, খুলনা

খুলনার বটিয়াঘাটায় হাত-মুখ বেঁধে দুই বোনকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১৪ মে) মধ্যরাতে উপজেলার ফুলতলায় নিজ বাড়িতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পরে রবিবার (১৫ মে) রাত ৮টার দিকে তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়া হলে ঘটনা জনাজানি হয়। সম্পর্কে তারা দু'জন খালাতো বোন। ২৪ বছর বয়সী স্বামী পরিত্যক্তা বড় বোনের ২২ মাস বয়সী একটি সন্তান রয়েছে। অন্যজন ১৩ বছর বয়সী স্কুল ছাত্রী।

এব্যাপারে স্কুল ছাত্রীর মা জানান, শনিবার (১৪ মে) বিকেলে তিনি বোনের বাড়ি ডুমুরিয়াতে গিয়েছিলেন। তার স্বামীও চিকিৎসার জন্য বাগেরহাটে গিয়েছিলেন। এসময়ে বাড়িতে ওরা দুই বোন ছিলো।

ঘটনার দিন মধ্যরাতে ৭জন তাদের বাড়িতে যায়। এরপর তাদের কয়েকজন ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে প্রথমে বড় মেয়ের সন্তানের গলায় ছুরি ধরে দুই বোনের হাত ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটিকে পানিতে ডুবিয়ে রাখে। এ সময় ঘরের বাইরে বাকিরা পাহারায় ছিলো।

ঘটনার পর ভোর রাতে মেয়েরা তাকে ফোন করে কান্নাকাটি করে ঘটনা জনায়। অতঃপর বাড়িতে এসে ছোট মেয়েকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন ও শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে খুলনা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বড় মেয়ে সেখানে ছেলের কাছেই আছে। সে নিজেও মারাত্মক অসুস্থ বলে জানিয়েছেন তিনি।

এব্যাপারে বটিয়াঘাটা থানার তদন্ত পরিদর্শক মো. জাহিদুর রহমান জানান, ধর্ষণের ঘটনা জানতে পেরে তিনি নিজে হাসপাতালে গিয়েছেন।  তাদের সাথে কথাও বলেছেন। দুই জনের নাম-পরিচয় বলতে পারলেও বাকিদের চিনতে পারেননি তারা। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সাহস২৪.কম/এএম/এসটি/এসকে.

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?