সর্বনিম্ন তাপমাত্রায় কাঁপছে দিনাজপুরবাসী

প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৩:২১

সাহস ডেস্ক

উত্তর থেকে বয়ে আসা হিমেল বাতাস ও শীতকালে রেকর্ড বৃষ্টিপাতের পর উত্তরাঞ্চলে আবার শীত জেঁকে বসেছে। আর মাঘের শুরুতেই শৈত্যপ্রবাহের কারণে ঘন কুয়াশার সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে দিনের বেলায়ও যানবাহনকে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

আজ বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দিনাজপুরে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৯ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে,বাতাসের আর্দ্রতা ৯৬ শতাংশ, বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ৪-৫ কিলোমিটার। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এটি উত্তর বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৮-১০ কিলোমিটার গতিতে প্রবাহিত হচ্ছে।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন বলেন, শীতের প্রকোপ কয়েক দিন অব্যাহত থাকবে। তবে অতিরিক্ত কুয়াশা ও উত্তর-পশ্চিম অঞ্চল থেকে আসা হিমালয়ের শীতল বায়ু প্রবাহের কারণে শীত বেশি অনুভূত হচ্ছে। জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে দিনাজপুরে আবারও বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে শৈত্যপ্রবাহের কারণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের জীবন। কুয়াশার কারণে গত ১৯ দিনে দিনাজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাড়া-মহল্লা এবং রাস্তার ধারে খড়কুটো, ময়লা-আবর্জনা দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে তাপ পোহাতে দেখা গেছে মানুষকে। এবারের শীত মৌসুমে গত ১২ জানুয়ারি দিনাজপুরে সর্বোচ্চ ১১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?