এবার বান্দরবানে সন্তানদের জিম্মি করে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

প্রকাশ : ২৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮:৫০

সাহস ডেস্ক

দুই শিশুসন্তানকে ঘরে আটকে রেখে প্রবাসীর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে রাতভর ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে বান্দরবানের লামা উপজেলার রুপসী পাড়া ইউনিয়নের বৈদ্যভিটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই নারীকে মারধর এবং বসতবাড়িতে লুটপাট করে দুর্বৃত্তরা।

জানা যায়, ভুক্তভোগী নারীর স্বামী প্রবাসী। দুই শিশুসন্তানকে নিয়ে নিজ বাড়িতে একা থাকতেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ২টার দিকে বাথরুমে যাওয়ার জন্য ঘর থেকে বের হলে দুর্বৃত্তরা তার মুখ চেপে ধরে। এ সময় তার দুই শিশুকে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। পরে রাতভর ধর্ষণ ও মারধর করা হয়। ধর্ষণের পর বাড়ির আলমারি ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা বলে অভিযোগ করেন গৃহবধূ।

সকালে পার্শ্ববর্তী এক নারী ওই বাড়িতে পানি আনতে গেলে ঘরের জানালা দিয়ে দুই শিশুকে কান্না করতে দেখেন। তিনি এগিয়ে গেলে ওই ভুক্তভোগী নারীকে বাড়ির পেছনে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় দেখেন। পরে জানাজানি হলে স্বজন ও প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় ওই নারীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এর আগে একই দিনে কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে সপরিবারে বেড়াতে গিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী পর্যটক। তার স্বামী-সন্তানদের জিম্মি করে রাখা হয়েছিল। একটি হোটেল থেকে ওই নারী উদ্ধার করে র‌্যাব। সেই হোটেলের ম্যানেজারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?