প্রবাসীদের টার্গেট করে সর্বস্ব লুটে নিতেন তারা

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৬:২৮

সাহস ডেস্ক

প্রবাস থেকে স্বল্প সময়ের জন্য বাংলাদেশে আসা বিদেশি ও প্রবাসীদের টার্গেট করা হয় বিমানবন্দরে নামার পরই। গাড়ির জন্য অপেক্ষায় থাকা প্রবাসীদের গাড়ি দিয়ে সহযোগীতার নামে গাড়িতে তুলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করা হয়। আবার কখনও সখ্যতা গড়ে চক্রের সদস্যরা টার্গেট করা প্রবাসীদের চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে অজ্ঞান করে ঢাকার বাইরে ফেলে দেয়। লুট করা হয় সঙ্গে থাকা সব মালামাল।

আজ রবিবার (১৭ অক্টোবর) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার এ কথা বলেন।

রাজধানীর বিমানবন্দর কেন্দ্রীক সম্প্রতি সংঘঠিত দুটি ডাকাতির ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে একটি সংঘবদ্ধ চক্রের সন্ধান পায় ডিএমপির গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ। গ্রেপ্তার করা হয় চক্রের তিন সদস্যকে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মাসুদুল হক (আপেল), আমির হোসেন হাওলাদার ও শামীম।

এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর হাতিরঝিল থানাধীন মীরবাগ এলাকা থেকে ডিএমপির গোয়েন্দা উত্তরা বিভাগের একটি টিম ডাকাত চক্রের তিনজনকে গ্রেপ্তার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতি করা পাঁচটি পাসপোর্ট, দুইটি এনআইডি কার্ড, দুইটি এটিএম কার্ড, একটি আইপ্যাড, একটি ওয়ার্ক পারমিট কার্ড, একটি বিএমইটি কার্ড, একটি অফিস আইডি কার্ড, একটি চাকু ও নগদ ৫৫ হজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার কাজী শফিকুল আলমের সার্বিক নির্দেশনায় এবং অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার আছমা আরা জাহানের তত্ত্বাবধানে অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. কায়সার রিজভী কোরায়েশীর নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, এ চক্রটি এই ধরনের অনেক ঘটনা ঘটিয়েছে। পুলিশের চোখ এড়ানোর জন্য তারা ঢাকার ভিতরে কাজ শুরু করে ঢাকার বাহিরে গিয়ে বাকি অপরাধ কাজ শেষ করে। তাদের মূলহোতা মাসুদুল আলম জানান তারা প্রায় ৪০ লাখ টাকার মতো মালামাল বিভিন্নজন থেকে লুট করেছেন। এরপর সেটা নিজেদের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারা করে নিয়েছেন। মাসুদুল আলমের নামে ৭টি মামলা রয়েছে বলেও জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার।

করোনার এ সময়ে প্রচুর সংখ্যক প্রবাসী দেশে ফিরে আসা শুরু করেছেন। এদের মাধ্যমে অপরাধ যাতে সংগঠিত না হতে পারে সেজন্য আমরা অভিযান শুরু করেছি বলেও জানান হাফিজ আক্তার।

সাহস২৪.কম/এমআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা এখন শূন্যের কোঠায় পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আপনিও কি তাই মনে করেন?