x

এইমাত্র

  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ২৬১১ জন, মৃত ৩২ জন
  •  মহামারি করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৭ লাখ ২৪ হাজার, আক্রান্ত ১ কোটি ৯৫ লাখেরও বেশি

নৌ-অধিদপ্তরের দায়িত্ব পেলেন ফেরি দেরি করানো সেই যুগ্মসচিব

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০২০, ০৩:৪৯

সাহস ডেস্ক

যে যুগ্মসচিবের অপেক্ষায় মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে ফেরি ছাড়তে তিন ঘণ্টা দেরি হওয়ায় এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছিল, সেই যুগ্মসচিব নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুলাই) সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের পরিচালকের দায়িত্বে থাকা যুগ্মসচিব মো. আবদুর সবুর মন্ডলকে নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক পদে নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

জানা গেছে, বর্তমানে নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের দায়িত্বে থাকা কমডোর সৈয়দ আরিফুল ইসলামের চাকরির মেয়াদ আগামী আগস্ট মাসে শেষ হবে। তার আগেই তাকে নৌবাহিনীতে ফিরিয়ে নেওয়া হবে। সে কারণে অধিদপ্তরটিতে নতুন মহাপরিচালক নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৫ জুলাই রাতে মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ১ নম্বর ফেরিঘাটে ফেরির জন্য অপেক্ষা করছিল সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত স্কুলছাত্র বহনকারী একটি অ্যাম্বুলেন্স। অ্যাম্বুলেন্সে থাকা স্কুল ছাত্র তিতাসের স্বজনেরা ঘাটের কর্মকর্তাদের ফেরি ছাড়তে অনুরোধ জানান। ঠিক ওই সময়ই মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ঘাট কর্তৃপক্ষকে একটি জরুরি বার্তা পাঠান। বার্তায় বলা হয়, সরকারি একজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা ফেরিতে পদ্মা পাড়ি দেবেন। তাই ১ নম্বর ফেরিঘাটে থাকা ফেরিটি যেন আগে না ছেড়ে যায়। আর এ জন্য ঘাট কর্তৃপক্ষ ওই কর্মকর্তার গাড়ি না আসা পর্যন্ত ফেরি ছাড়তে রাজি হয়নি।

মারা যাওয়া ওই স্কুলছাত্রের নাম তিতাস ঘোষ (১১)। সে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পৌর এলাকার মৃত তাপস ঘোষের ছেলে। কালিয়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ছিল তিতাস।

তিতাসের স্বজনদের অভিযোগ, ভিআইপি আসার অপেক্ষায় প্রায় তিন ঘণ্টা ঘাটেই বসে ছিল ফেরিটি। আশপাশের লোকজনের অনুরোধের পরও কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে ফেরি ছাড়েনি। এমনকি সরকারি জরুরি সেবা পেতে ৯৯৯ নম্বর ফোন করেও কোনো কাজ হয়নি।

এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের পর দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠে। তবে সেই ঘটনায় একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে গঠিত প্রশাসনিক তদন্ত কমিটি যুগ্ম সচিব মো. আবদুর সবুর মন্ডল ও মাদারীপুরের তৎকালীন জেলা প্রশাসকের দায় খুঁজে পায়নি। যদিও নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের তদন্ত প্রতিবেদনে তিতাসের মৃত্যুতে যুগ্মসচিব দায় এড়াতে পারেন না বলে মন্তব্য করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত