x

এইমাত্র

  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ২৭৩৩ জন, মৃত ৩৯ জন
  •  ফাহিম সালেহর খুনী চিহ্নিত
  •  মহামারি করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৫ লাখ ৮৭ হাজার, আক্রান্ত ১ কোটি ৩৭ লাখেরও বেশি
  •  কাঠগড়ায় কাঁদলেন সাহেদ, বললেন করোনা আক্রান্ত তিনি

ক্যাপ্টেন মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ, অপেক্ষা ফাঁসির

প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০২০, ১৩:১৪

সাহস ডেস্ক

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ও বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপাতি মো. আবদুল হামিদ। এখন পরবর্তী প্রক্রিয়া অনুসরণ করে তার ফাঁসির দণ্ড কার্যকর করা হবে।

বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) এ তথ্য জানান স্বরাষ্ট্রমমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খান কামাল। এর আগে বুধবার (৮ এপ্রিল) তিনি প্রাণ ভিক্ষার আবেদন করেন।

গতকাল বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব শহীদুজ্জামান বলেন, আমরা আবেদন পেয়েছি। সেটা রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

এর আগে মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ও বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁসির দণ্ড কার্যকরে আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়ে গেছে বলে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

মন্ত্রী বলেন, তিনি কারাগারে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি সৃষ্টি করতে পারেন কি-না, এমন প্রশ্ন আমার কাছে এসেছে। আব্দুল মাজেদকে মিরপুর সাড়ে ১১ নম্বর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি ফাঁসির দণ্ডে দণ্ডিত আসামি। ফাঁসির দণ্ডে দণ্ডিত আসামিদের সলিটারি কনফাইনমেন্টে রাখা হয়। আব্দুল মাজেদকে সলিটারি কনফাইনমেন্টে রাখা হবে। এ হিসেবে তিনি করোনা ভাইরাস ছড়ানোর কোনো ঝুঁকি সৃষ্টি করবেন না।

আইনমন্ত্রী বলেন, তিনি (ক্যাপ্টেন মাজেদ) বঙ্গবন্ধু হত্যা ষড়যন্ত্র ও হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। ক্যাপ্টেন আবদুল মজিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য প্রমাণ পাওয়ার পর বিচারিক আদালত এবং আপিল আলাদত তাকে ফাঁসির দণ্ডে দণ্ডায়িত করেন। এখন ক্যাপ্টেন আবুল মাজেদের বিরুদ্ধে রায় কার্যকর করার জন্য আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়ে গেছে। আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলেই এই রায় কার্যকর করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত