x

এইমাত্র

  •  এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ
  •  করোনায় সারা বিশ্বে মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ৭১ হাজার ২৩ জন
  •  করোনায় বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত ৬১ লাখের অধিক, সুস্থ হয়েছেন ২৭ লাখেরও বেশী
  •  করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা নয়
  •  করোনাভাইরাসঃ বাংলাদেশে রেকর্ড ৪০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৫৪৫

করোনাভাইরাস: আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য

প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল ২০২০, ১৪:৪৩

সাহস ডেস্ক

করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা নিয়ে সরকারের দায়িত্বশীল দুই কর্মকর্তা দিলেন দুরকমের তথ্য। দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ২৯ জনের শরীরে করোনা সনাক্তের কথা জানান। কিন্তু নিয়মিত ব্রিফিংয়ে নতুন আরো ৬ জন আক্রান্তের কথা জানান আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

প্রথমদিকে এককভাবেই করোনাভাইরাস সংক্রান্ত দৈনিক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আসছিলেন আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, কিন্তু সম্প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও এতে যোগ দিচ্ছিলেন।

সোমবার (৬ এপ্রিল) এক অনির্ধারিত অনুষ্ঠানে আকস্মিকভাবেই নতুন আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা প্রকাশ করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, গত চব্বিশ ঘণ্টায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। তার উল্লেখ করা নতুন শনাক্ত রোগী ছিলেন ২৯ জন, এই সংখ্যাও এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

কিন্তু এর দুই ঘণ্টা পর নিয়মিত অনলাইন সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসে সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, গত চব্বিশ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩ জন। নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৩৫ জন।

স্পষ্টতই দুই রকম তথ্য পাওয়া যাচ্ছে দুজনের কাছ থেকে, যদিও দুজনেই দায়িত্বশীল পদে আছেন এবং এই দুজনের যে কোন একজনের দেয়া তথ্যই এতদিন করোনাভাইরাস সংক্রান্ত গ্রহণযোগ্য তথ্য হিসেবে গণ্য করে আসা হচ্ছিল। এখন দেখা যাচ্ছে জাহিদ মালেকের দেয়া তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশে মোট মৃতের সংখ্যা ১৩, শনাক্ত রোগী ১১৭। কিন্তু মিজ ফ্লোরার দেয়া হিসেব অনুযায়ী মোট রোগী ১২ জন। শনাক্ত হয়েছেন ১২৩ জন।

তার হিসেবে, নতুন যারা শনাক্ত হয়েছেন তার মধ্যে পুরুষ ৩০ জন, পাঁচজন মহিলা এখন পর্যন্ত যারা শনাক্ত হয়েছেন তার মধ্যে ঢাকায় ৬৪ জন, নারায়ণগঞ্জে ২৩ জন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত