x

এইমাত্র

  •  গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় নতুন সংক্রমিত ২৬৫৪ জন, মৃত ৩৩ জন
  •  লেবাননে ভয়াবহ বিস্ফোরণ; নিহত ৭৮ এবং আহত ৪ হাজারের অধিক
  •  মহামারি করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৭ লাখ ৫ হাজার, আক্রান্ত ১ কোটি ৮৭ লাখেরও বেশি
  •  লেবানন বিস্ফোরণে নিহত ৩ বাংলাদেশী, আহত ৭৮

মোবারক হোসেন ভূঁইয়া হত্যা মামলায় ১২ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ : ২১ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:১২

সাহস ডেস্ক

ঢাকা আইনজীবী সহকারী স‌মি‌তির সদস্য মোবারক হোসেন ভূঁইয়া হত্যা মামলায় ১২ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। বাজিতপুর থানার গোথালিয়ার মোবারক হোসেন ভূঁইয়া হত্যা মামলায় এ রায় দেওয়া হয়।

সোমবার (২১ অক্টোবর) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল- ৩ এর বিচারক মো. মনির কামাল এ রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মো. মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া ওরফে মহুব, মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া ওরফে বাদল ভূঁইয়া, আফজাল ভূঁইয়া, এমদাদুল হক ওরফে সিকরিত ভূঁইয়া, নয়ন ভূঁইয়া, ভুলন ভূঁইয়া ওরফে ভুলু, রুহুল আমিন, শিপন মিয়া, সুলতানা আক্তার, দেলোয়ার হোসেন, বিধান সন্যাসী ও নিলুফা আক্তার। মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেকের ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অপর দুই আসামি তাসলিমা আক্তার (পলাতক), শামীম ওরফে ফয়সাল বিন রুহুলকে (পলাতক) এক বছর সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

জয়নাল আবেদীন নামে একজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়া বিচারক তাকে খালাস প্রধান করেন।

আসা‌মিদের মধ্যে সুলতানা, দেলোয়ার, বিধান ও নিলুফা পলাতক। বা‌কিরা রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপ‌স্থিত ছিলেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, বাদী অ্যাডভোকেট মোজাম্মেল হক মৃত্তিকা প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশন ও প্রতিবন্ধী শিশু পাঠশালা নামে প্রতিষ্ঠানের সেক্রেটারি ও ভিকটিম মোবারক হোসেন ভূঁইয়া ছিলেন নির্বাহী কমিটির প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য। আসামিরা দীর্ঘদিন থেকে ওই প্রতিবন্ধী ফাউন্ডেশনের বিরো‌ধিতা করে আসছিলেন। ২০১৫ সালের ২২ অক্টোবর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আসামিরা প্রতিষ্ঠানটি ভাঙচুর করতে যান। এতে বাধা দিলে পরিকল্পিতভাবে ভিকটিম মোবারক হোসেন ভূঁইয়াকে তারা হত্যা করেন।

২০১৭ সালের ২ জানুয়ারি বাজিতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামলার তদন্ত শেষে ১৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। একই বছর ১৭ ডিসেম্বর ট্রাইব্যুনাল আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত