x

এইমাত্র

  •  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে জানালার গ্রিলে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় একজনের মৃতদেহ উদ্ধার

৭ দিন পানিতে ভেসে ভেসে ৬০০ কিলোমিটার!

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৯, ১২:১২

বাংলাদেশী জাহাজ এমভি যাওয়াদ তখন কুতুবদিয়ার নিকট অবস্থান করছিল। ব্রিজ উইংয়ে অবস্থান করছিলেন জাহাজের ক্যাপ্টেন ও চীফ অফিসার। হঠাৎ করে জাহাজের পোর্ট সাইডে কিছু একটা তাদের নজর কেড়ে নেয়।

ক্যাপ্টেন এর আহ্বানে সবাই তাকিয়ে দেখল কোনমতে একটি কাঠের টুকরা ধরে ভেসে আছে একজন মানুষ। বিপন্ন মানবতার যুগেও তৎপর হয়ে উঠল জাহাজের প্রতিটি মানুষ। মুহূর্তেই ছুঁড়ে দেয়া হল লাইফবয়া ও লাইফ জ্যাকেট। কিন্তু লো টাইডের মারাত্মক প্রভাবে লোকটা শুধুমাত্র লাইফ জ্যাকেটটি ধরতে পারে।

লাইফবয়া চলে যায় তার নাগালের অনেক বাইরে। ক্যাপ্টেনের নির্দেশে জাহাজ ৩ নটিক্যাল মাইল পিছিয়ে গিয়ে তাকে খুঁজে পায়। আবারও কয়েকবারের চেষ্টায় লাইফবয়া পৌঁছানো হয় তার নিকট। এরপর তাকে নিয়ে আসা হয় জাহাজের নিকটে। তবে এরপরও প্রবল স্রোতের কারণে প্রচুর চেষ্টা আর কসরতের পর উদ্ধার করা হয় তাকে।

জাহাজে উঠে প্রাথমিক চিকিৎসা ও সেবার পর কিছুটা সুস্থ হয়ে নিজের পরিচয় দেয় উদ্ধারকৃত লোকটি। তার নাম রবীন্দ্রনাথ দাস (৩৯), বাড়ী ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনায়।
 
তার কাছ থেকে জানা যায় ভারতের হলদিয়ায় মাছ ধরছিল সে সহ আরও ১৫ জনের একটি জেলের দল। উদ্ধারের ৭ দিন আগে হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে তাদের ফিশিং বোট। ১৫ জনের মাঝে ১০ জন ছিটকে পড়ে উদ্ধার হওয়া স্থান থেকে ৬০০ কিলোমিটার দূরে। বোটের ভিতর থাকা ৫ জন এর খবর অজানা।
 
উদ্ধারকৃত জেলেসহ ৩ জন আজ (১১ জুলাই) সকাল অবধি বোটের একটি বিচ্ছিন্ন অংশ ধরে বেঁচে ছিল। ঝড়ের পর থেকে উদ্ধারের আগ পর্যন্ত তারা শুধুমাত্র সামান্য বৃষ্টির পানি খেয়ে বেঁচে ছিল। উদ্ধারের ২/৩ ঘন্টা আগে বাকী ২ জন তলিয়ে গেলেও বেঁচে থাকার আশায় চেষ্টা করছিল রবীন্দ্রনাথ।

অবশেষে বাংলাদেশী জাহাজ এমভি যাওয়াদ এর নজরে পড়ে সে আর জ্বল জ্বল করে উঠে আশার প্রদীপ।

সাহস২৪.কম/জুবায়ের/জয়

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত