x

এইমাত্র

  •  আজ ১৭ই জুলাই প্রকাশিত হচ্ছে এইচ এস সি ফলাফল ২০১৯।

ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকা ডুবিতে তিন জনের মৃত্যু

প্রকাশ : ০৭ মে ২০১৯, ১৮:৩৮

সাহস ডেস্ক

গাইবান্ধা সদর উপজেলার গিদারি ইউনিয়নে ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকা ডুবিতে রোকেয়া বেগম (৪৫), ফিরোজা বেওয়া (৪০) ও শান্তনা খাতুন (১০) নামে তিন জনের মৃত্যু হয়েছেন এবং মেরেনা আকতার (১৩) ও আঙ্গুর মিয়া (৪০) নামে দুইজন নিখোঁজ রয়েছেন।

৭ মে (মঙ্গলবার) সকালে ভুট্টার জমিতে কাজ করতে যাওয়ার সময় এ নৌকাডুবির ঘটা ঘটে।

নিহতরা হলেন ধুতিচোরা গ্রামের ইনছার আলীর স্ত্রী রোকেয়া বেগম, দক্ষিণ গিদারি গ্রামের মৃত আইজল মুন্সির স্ত্রী ফিরোজা বেওয়া ও সাজু মিয়ার মেয়ে শান্তনা খাতুন।

নিখোঁজ ২ জন হলেন দক্ষিণ গিদারি গ্রামের মিনহাজ মিয়ার মেয়ে মেরেনা আকতার ও ধুতিচোরা গ্রামের ফুলমিয়ার ছেলে আঙ্গুর মিয়া। অনেক খোঁজাখুজি করেও তাদের কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না।

গিদারি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ ইদু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, ভুট্টার জমিতে কাজ করার জন্য সদর উপজেলার গিদারি ইউনিয়নের নয়া গ্রাম থেকে সকাল ৯টার দিকে ৫০ জন কৃষি শ্রমিক নারী ও পুরুষ নৌকায় করে ব্রহ্মপুত্র নদ পার হচ্ছিলেন। নদীর অপর পাড়ে ধুতিচোরা গ্রামে যাওয়ার পথে মাঝ নদীতে পৌঁছালে হঠাৎ করে নৌকাটি ডুবে যায়।

এ সময় ৪১ জন সাঁতরিয়ে পাড়ে উঠতে পারলেও ৯ জন নৌকা যাত্রী পানিতে ডুবে যায়। এর মধ্যে ৩ জন মারা গেছেন। বাকি ২ জন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

গাইবান্ধা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ম্যানেজার বখতিয়ার উদ্দিন জানান, ৩০ জনের মত যাত্রী বহনে সক্ষম একটি নৌকায় অতিরিক্ত যাত্রী নেয়ার ফলে পানি উঠে নৌকাটি ডুবে যায়। এ ব্যাপারে নিখোঁজদের খুঁজে বের করার জন্য রংপুর থেকে ডুবুরিদল এসে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

গিদারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ ইদুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ৩ জন মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, নিখোঁজ ২ জনকে খুঁজে বের করতে ডুবুরি দল অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত