x

এইমাত্র

  •  করোনাভাইরাসে নতুন আক্রান্ত আরও পাঁচজন
  •  করোনা: মক্কা-মদিনায় অনির্দিষ্ট কালের জন্য কারফিউ
  •  ঢামেকে আইসোলেশনে দু'জনের মৃত্যু, করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ
  •  করোনাভাইরাস: সতর্ক করে চিঠি লেখা ক্যাপ্টেনকে অপসারণ করলো মার্কিন নৌবাহিনী
  •  করোনোভাইরাস: সারাবিশ্বে আক্রান্ত সংখ্যা ১০ লাখের বেশি, মৃতের সংখ্যা ৫৩ হাজার ছাড়ালো

দেশে সর্বপ্রথম চালু হলো 'প্রাণী বীমা'

প্রকাশ : ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০০:২৯

সাহস ডেস্ক

গবাদি প্রাণী লালন-পালনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট খামারিদের আর্থিক নিরাপত্তার নিশ্চয়তা বিধান ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণ প্রদানের প্রতিবন্ধকতা নিরসনকল্পে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে সফলতার নতুন মাত্রা দিতে কাজ করছে ফিনিক্স ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

'ডিজিটাল খামার গড়ি, গবাদি প্রাণীর বীমা করি' এই স্লোগানে গ্রামীণ আর্থসামাজিক উন্নয়নে সরকারের মিশন এবং ভিশন বাস্তবায়নের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রাণীসম্পদ উন্নয়নে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি শনাক্তকরণের মাধ্যমে গবাদি প্রাণীর সঠিক স্বাস্থ্য ও অবস্থান রক্ষণাবেক্ষণসহ প্রাণী সম্পদের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে দেশে সর্বপ্রথম 'প্রাণী বীমা' চালু করেছে কোম্পানিটি। 

বাংলাদেশে খামারিদের আর্থিক সুরক্ষার নিরাপত্তা প্রদানের জন্য কোন প্রকার 'প্রাণী বীমা সেবা' প্রচলিত না থাকায় ব্যাংক ও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান তাদের আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় গবাদি প্রাণীর খামারিদের বৃহৎ আকারের কোন ঋণ প্রদান করে না। এই সমস্যা থেকে খামারি ও কৃষকদের বাঁচাতে বীমা সেবা চালু করেছে ফিনিক্স ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

কোন প্রাণী চুরি হলে বা হারিয়ে গেলে অথবা স্থায়ীভাবে পূর্ণাঙ্গ পঙ্গু হলে কিংবা দুর্ঘটনা, আঘাত, জখম, অসুস্থতা বা বিভিন্ন ধরনের রোগের কারণে মারা গেলে উক্ত ক্ষতিগ্রস্ত প্রাণীর বীমাকৃত অংক বা বাজার মূল্য পর্যন্ত ক্ষতিপূরণের নিশ্চয়তা প্রদান করে ফিনিক্স ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

কোম্পানিটির রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি শনাক্তকরণ প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোবাইল সফটওয়্যারের মাধ্যমে প্রাণীর জাত নির্ণয়, জাত উন্নয়ন, সফল প্রজনন, তথ্য সংরক্ষণ, প্রজনন অবস্থা, গবাদি প্রাণী লালন-পালন ব্যবস্থাপনা, গবাদি প্রাণীর সার্বক্ষণিক অবস্থা শনাক্ত করা, রোগব্যাধির আগাম তথ্য জানা ও চিকিৎসা প্রদান এবং সর্বোপরি গবাদি প্রাণীর বীমা সুবিধা প্রদান করা হয়।

ফিনিক্স ইনসিওরেন্স কোম্পানির রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি প্রযুক্তিতে একটি বায়োসেন্সর গবাদি প্রাণীর পাকস্থলীতে প্রবেশ করানো হয়। এই বায়োসেন্সর প্রাণীর পাকস্থলী থেকে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি শনাক্তকরণ প্রক্রিয়ায় তথ্য তৈরি এবং তা প্রদান করে। এই প্রযুক্তি বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনেরও অনুমোদনপ্রাপ্ত।

বিভিন্ন স্কিম অনুযায়ী এই বীমা সুবিধা প্রদান করা হয়। সরকারি বিভিন্ন কর্মসূচি বা প্রকল্পের আওতায় যে সব প্রাণীসম্পদের ওপর আর্থিক প্রণোদনা বা ভর্তুকি প্রদান করা হয় সেগুলো স্কিম এনিমেলের আওতাভুক্ত।

ফিনিক্স ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের বীমা সেবায় প্রকারভেদে বার্ষিক প্রিমিয়াম হার রয়েছে। স্কিম-এনিমেলের মৃত্যুতে ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ, নন- স্কিম এনিমেলের মৃত্যুতে ও চুরি বা হারিয়ে গেলে যথাক্রমে ৪ দশমিক ৫০ শতাংশ ও ২ দশমিক ২৫ শতাংশ, স্কিম ও নন-স্কিম এনিমেলের পিডিটি যথাক্রমে ১ শতাংশ ও ১ দশমিক ৫০ শতাংশ প্রিমিয়াম হার রয়েছে। এছাড়া বিদেশি গরুর ক্ষেত্রেও রয়েছে বিশেষ প্রিমিয়াম হার।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত